Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ সোমবার, আগষ্ট ২০২২ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

মোরোগের ডাকে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটায় মামলা!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ জুলাই ২০১৯, ১১:০২ AM
আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯, ১১:০২ AM

bdmorning Image Preview


প্রতিদিন ভোর হতে না হতেই প্রতিবেশীর মোরগ উচ্চৈঃস্বরে ডেকে ওঠে। আর সেই ডাকে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে প্রতিবেশীদের। মোরগের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনে এক প্রতিবেশী মোরগের মালিকের নামে মামলা ঠুকে দিয়েছেন।

সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে ফ্রান্সে। মোরগ ডাকার মতো তুচ্ছ কারণে মামলা করায় অবাক হয়েছেন দেশটির অধিকাংশ মানুষ। মামলাটি ফ্রান্সজুড়ে আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি করেছে। অনেকে এই মামলাকে ফরাসি গ্রামীণ সংস্কৃতির ওপর আঘাত হিসেবে দেখছেন। তার ওপর মোরগ ফ্রান্সের অন্যতম জাতীয় প্রতীক।

এ মামলার প্রথম শুনানি অনুষ্ঠিত হয় গত বৃহস্পতিবার। এদিন আদালতের বাইরে মহিসের অনেক সমর্থকের পাশাপাশি অনেক মোরগ-মুরগিও ছিল সেখানে। ফ্রান্সের পশ্চিমাঞ্চলীয় দ্বীপ ওলেহোঁর হোশফো শহরের সাঁ-পিয়ে-দোলেহোঁ এলাকার বাসিন্দা কোহিন ফেসুর পোষা ওই মোরগটির নাম মহিস। তার ৪০ প্রতিবেশীর মধ্যে মাত্র দুজন মহিসের ডাক নিয়ে অভিযোগ করেছেন। এ নিয়ে স্থানীয় গেজাক গ্রামের মেয়র ব্রুনো দিওনিস দু সেজু এক খোলা চিঠি দিয়েছেন।

তাতে তিনি লিখেছেন, গ্রামে গির্জার বেল বাজবে, গরু হাম্বা ডাকবে, গাধারা ডাকবে-এ-ই তো ফ্রান্সের ঐতিহ্য। আমি যখন শহরে যাই, তখন তো ট্রাফিক বাতি ও গাড়িঘোড়া সরাতে বলি না। ফ্রান্সে গ্রাম ও শহরের মধ্যে ক্রমে সম্পদের তারতম্য বাড়ছে। সেই সঙ্গে কম মজুরি, বেশি করসহ নানা কারণে জনমনে ক্ষোভও জমছে। এরই জেরে গত নভেম্বরে শুরু হয় ‘ইয়েলো ভেস্ট’ আন্দোলন। মহিসও এই আন্দোলনে যোগ দিয়েছে। মোরগটির নিজস্ব একটা ফেসবুক পেজে দেখা যায়, নভেম্বরের শুরুতেই এটি বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছে।

Bootstrap Image Preview