Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ সোমবার, আগষ্ট ২০২২ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

চুলে রং করছেন?তাহলে ডেকে আনছেন এই ক্ষতিগুলো

বিডিমর্নিং ডেস্ক:
প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৮, ০৪:৪৩ PM
আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৮, ০৪:৪৩ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য অনেকেই চুলে রং করে থাকেন। কিন্তু চুলে করা এই নানা ধরনের রং এর মারাত্মক কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে তা হয়তো অনেকেই জানেন না। এর মধ্যে ক্যান্সার অন্যতম।

চলুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক চুলে রং করলে শরীরে কী কী ক্ষতি হতে পারে,

অ্যালার্জি
অনেকের ত্বক বেশি সংবেদনশীল হয়ে থাকে। ফলে সামান্য রাসায়নিকের সংস্পর্শে আসা মাত্রই অ্যালার্জির সমস্যা শুরু হয়ে যায়। চুল রঙ করার প্রোডাক্টে প্রচুর পরিমাণে জৈব উপাদান পিপিডি উপস্থিত। যার প্রভাবে মাথার ত্বকে চুলকানি, জ্বালা, ফুলে যাওয়া, র্যা শ ওঠা, খুশকি সমস্যা দেখা দিতে পারে। এ ছাড়াও অ্যালার্জি যদি মারাত্মক পর্যায়ে চলে যায় তাহলে চোখ ফুলে যাওয়া, চোখ, নাক ও মুখের চারপাশের ত্বকে অ্যালার্জির প্রকোপে র্যাৈশ দেখা দিতে পারে।

চুল ভেঙে পড়া
চুলে অতিরিক্ত রং ব্যবহার করলে চুল ভেঙে যাওয়ার মাত্রা বেড়ে যেতে পারে। রঙের ক্ষতিকর রাসায়নিক চুলের ফলিকল একেবারেই নষ্ট করে দেয়। ফলে মাঝখান থেকে চুল ভেঙে যেতে শুরু করে এবং নতুন চুল গজানোতেও বাধা সৃষ্টি করে।

হাঁপানি
অবাক হলেও একথা সত্যি যে চুলের রঙের জন্য হাঁপানির সমস্যা দেখা দিতে পারে বা বাড়তে পারে। একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা নিয়মিত চুল রং করেন, তাদের ত্বকে অ্যালার্জি বা হাঁপানি হওয়ার প্রবণতা অনেকটাই বেশি।

ক্যান্সার
'দ্য অ্যামেরিকান ক্যান্সার সোসাইটি'র গবেষণায় দেখা গেছে, পিপিডি মানুষের ডিএনএ সেল নষ্ট করে ক্যান্সারের কোষ উৎপন্ন করতে পারে। এই রাসায়নিক হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট করে দিতেও সক্ষম। যার ফলে স্তন ক্যান্সারের আশঙ্কাও অনেকটাই বেড়ে যায়। যদিও চুল রং করার রাসায়নিক মিশ্রণে এই পিপিডি নামক বস্তুটি পাওয়া গেছে খুবই সামান্য পরিমাণে তা সত্ত্বেও বিষয়টি নিয়ে আরও সতর্ক হওয়া উচিত।

Bootstrap Image Preview