Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৯ মঙ্গলবার, নভেম্বার ২০২২ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশকে স্থায়ী সমর্থন প্রয়োজন: বিশ্বব্যাংক

কূটনৈতিক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৫:৫০ PM
আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৫:৫০ PM

bdmorning Image Preview
রোহিঙ্গা শিশুদের সাথে বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্থইউং শাফার


বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্থইউং শাফার বলেছেন, রোহিঙ্গা জনগণের জরুরি চাহিদা পূরণের জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের বাংলাদেশকে দীর্ঘস্থায়ীভাবে সহায়তা প্রদান করতে হবে।

তিনি আজ বৃহস্পতিবার কক্সবাজার জেলায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করার পর এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে ভয়াবহ উদ্বাস্তু শিবির হচ্ছে কুতুপালং ক্যাম্প। মিয়ানমারের সহিংসতায় পালিয়ে আসা হাজার হাজার রোহিঙ্গাদের প্রাণ রক্ষা করার জন্যে বাংলাদেশ সরকার ও জনগণকে অভিনন্দন।

স্কেফার বলেন, নিজস্ব চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও বাংলাদেশে প্রায় এক মিলিয়ন রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে যার বেশিরভাগ নারী ও শিশু। বাংলাদেশ তাদের মানবিক সমর্থন ও মৌলিক চাহিদাগুলো পূরণ করছে। এইসব শিবিরগুলিতে প্রধান রোগের প্রাদুর্ভাব ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রতিরোধে সহায়তা করছে। কিন্তু এটি প্রয়োজনের চেয়ে অনেক বড়। বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশকে সংকট মোকাবেলায় সহায়তা করার জন্য আধা বিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থায়ন করেছে। বিশ্ব সম্প্রদায়ের এই সংকটে বিচলিত না হয়ে বরং বাংলাদেশকে আরও সহায়তা প্রদান করতে হবে।

বিশ্বব্যাংক কানাডায় ১৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের অনুদানসহ একটি সিরিজের প্রথম দুটি অভিযানের অনুমোদন দিয়েছে। যা ৭৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের সম-পরিমাণ। এদের মধ্যে বিশেষত রোহিঙ্গা নারী ও শিশুকে সাহায্য করার জন্য ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। রোহিঙ্গা শিশুদের মিয়ানমারে নিরাপদে ফিরে আসা পর্যন্ত সাহায্যের জন্য প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যসেবায় ২৫ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রয়েছে।

স্কেফার কুট্টুপালং ও নয়াপাড়া ক্যাম্পের মধ্য দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় রোহিঙ্গা নারী, পুরুষ ও শিশুদের সাথে দেখা করেন এবং ক্যাম্পের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা কেন্দ্রগুলিতে যান। তিনি স্থানীয় প্রশাসন, এনজিও এবং উন্নয়ন অংশীদারদের সাথেও সাক্ষাৎ করেন।

Bootstrap Image Preview