Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ রবিবার, মে ২০২২ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

মেধাবীরা দেরিতে ঘুমায়, গালিও বেশি দেয়

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৬:৪৬ PM
আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:২৬ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


উপরের কথাটি পড়ে হয়তো চমকে গেছেন। অনেকেই হয়তো চিন্তা করছেন নিজের কথা। কারণ এসব কাজ করে আপনাকে দুর্নাম কুড়াতে হয়। আবার অনেক সময় পরিবারের বকাও শুনতে হয়। কিন্তু গবেষকরা বলছেন ভিন্ন কথা।

তারা দাবি করছেন, যারা দেরিতে ঘুমান এবং গালি দেন তারা মেধাবী। এমনকি এই ধরনের মানুষ অন্যদের চেয়ে বেশি বুদ্ধিমান ও সৎ হন।

গবেষণাপত্রে এসব ব্যাক্তিদের স্মার্ট দাবি করে বলা হচ্ছে, যেসব মানুষ রাতে বেশি সক্রিয় থাকেন তাদের আইকিউ বা বুদ্ধিমত্তা বেশি। যার কারণেই তারা বেশি রাত করে জেগে থাকেন।

তাদের আইকিউ সম্পর্কে গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, যারা রাত ১১.৪১ মিনিটের মধ্যে ঘুমিয়ে পড়েন তাদের আইকিউ ৭৫ বা তার কম। আর যারা ১২.৩০ মিনিটের পরেও জেগে থাকেন তাদের আইকিউ ১২৩ বা তার বেশি।

বুদ্ধিমান ও মেধাবীদের সম্পর্কে গবেষকরা বলছেন, সাধারণ মানুষের চেয়ে কিছুটা অগোছালো হন বুদ্ধিমান ও মেধাবীরা। তারা তাদের ভাবনাকে প্রতিষ্ঠিত করতে অশালীন শব্দ ব্যবহার করতেও ভাবেন না। এমনকি এই ধরণের মানুষ পরিস্থিতি বদলের সঙ্গে সঙ্গে নিজের দক্ষতা বাড়িয়ে মানিয়ে নিতে পারেন। এছাড়াও যে কোনও কঠিন পরিস্থিতিতে তৈরি হওয়া সমস্যা সমাধানে এদের বিশেষ উৎসাহ দেখা যায়।

এ ব্যাপারে অ্যালবার্ট আইনস্টাইন বলেছিলেন, মানুষের জ্ঞান বুদ্ধিমত্তার নির্ণায়ক নয়, কল্পনাশক্তি দিয়ে বোঝা যায় বুদ্ধিমত্তা।

গবেষণাপত্রে গবেষকরা উল্লেখ করেছেন, প্রকৃত বুদ্ধিমান মানুষ সব কিছু গুরুত্ব দিয়ে দেখেন। এমনকি যে কোনও পরিস্থিতিতে নিজের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেন। এছাড়া নিজেদের ভুল থেকে সব থেকে বেশি শেখেন তারা।

গবেষণাপত্রে আরও দাবি করা হয়েছে, এসব মানুষের নৈতিকতার মান অনেক উঁচু হয়।

Bootstrap Image Preview