Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৭ শনিবার, নভেম্বার ২০২১ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

দাড়ি কাটার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলো তালেবান

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৮ PM
আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৮ PM

bdmorning Image Preview


দিন যত গড়াচ্ছে আফগানিস্তানে পুরনো সব বিধি-নিষেধগুলোকে ফিরিয়ে আনছে তালেবান।  আফগানিস্তানের হেলমান্দ প্রদেশে এবার সেলুনে গিয়ে দাড়ি কাটায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তালেবান।

 

দেশটির নাপিতদের কড়া ভাষায় বলে দেওয়া হয়েছে। তাদের কেউ যেন শেভ কিংবা দাড়ি ছাঁটার কোন কাজ না করেন।

তালেবানের ধর্মীয় পুলিশের মতে, দাড়ি শেভ করা ইসলামিক আইনের লঙ্ঘন। আর এই কাজটি যে করবে তাকে অবশ্যই কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানায়।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের নাপিতরাও একই ধরনের নির্দেশ পেয়েছেন বলে তারা দাবি করছেন। আর হেলমান্দ প্রদেশের সেলুনগুলোতে হঠাৎ করেই তালেবানের নির্দেশিকাসংবলিত একটি পোস্টার টানিয়ে দেওয়া হয়।  

এই পোস্টারে বলা হয়, চুল-দাড়ি কাটায় সেলুনে কাজ করা নাপিতদের অবশ্যই ইসলামি শরিয়া আইন মেনে চলতে হবে। এ ব্যাপারে কারো দ্বিমতের অধিকার নেই।

কাবুলের এক নাপিত বিবিসিকে বলেন, যোদ্ধারা (তালেবান) মাঝেমধ্যে আসছেন। আর দাড়ি ছাঁটা বন্ধ করার নির্দেশ দিচ্ছেন।  

দেশটির এক অফিসার এমনও বলেছেন, নির্দেশ অমান্যকারীদের ধরতে গোপনে অনুসন্ধান চালানো হবে।

কাবুলের সবচেয়ে বড় সেলুনটির এক নাপিত জানিয়েছেন, সরকারি কর্মকর্তা পরিচয় দেওয়া এক ব্যক্তি তাকে ফোন করেছিলেন। চুল-দাড়ি কাটায় আমেরিকান স্টাইল বন্ধ করাসহ দাড়ি শেভ কিংবা ছোট না করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত প্রথমবার ক্ষমতায় থাকা অবস্থায়ও তালেবানরা আফগানদের চুল-দাড়ি কাটায় এ ধরনের নির্দেশ জারি করেছিল। সেসময় প্রাপ্তবয়স্ক আফগানদের মুখে দাড়ি না থাকা ছিল একটি বিরল ঘটনা। তবে, মার্কিন বাহিনী থাকা অবস্থায় অসংখ্য তালেবানের মধ্যে নিয়মিত শেভ কিংবা নানা স্টাইলে দাড়ি ছেঁটে রাখার অভ্যাস গড়ে উঠেছিল।

Bootstrap Image Preview