Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৮ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বার ২০২১ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

শেষে একদিন কইলেন, কিস ইউ!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২ আগস্ট ২০২১, ০৯:৪৩ AM
আপডেট: ০২ আগস্ট ২০২১, ০৯:৪৩ AM

bdmorning Image Preview


ইশরাত জাহান উর্মি।। পঞ্চাশ বা তদোর্থ লোকটি শুরু করেছিলেন "হাই" দিয়ে। তারপর "মাই স্টোরি" তে লাভ রিঅ্যাক্ট।  তারপর নাইস, বিউটিফুল, লাভেবল, লাভলি  অপূর্ব এন শেষে একদিন কইলেন, কিস ইউ! মেজাজটা টং হয় কি না বলেন? কইলাম যে, কি বললেন? থাপড়ায়ে দাঁত ফেলে দেবো, আমি আপনার বন্ধু লাগি? সে কয়, ফ্রেন্ডলি কিস! বললাম যে, ফারদার বুঝেশুনে কমেন্ট করবেন। 

এরপর তিনি পূর্বের মোডে ফিরে গেলেন। নাইস, বিউটিফুল, লাভলি ইত্যাদি। কিছু বলি না। 
কয়েকদিন আগে থিকা একটু লম্বা ম্যাসেজ পাঠাইতে শুরু করলেন। রূপ যৌবন বর্ণনাপূর্বক। আমি চুপই থাকি। ইগনোর করি। 
কাল রাতেও যথারীতি স্টোরিতে আইসা লম্বা তেলতেলে ম্যাসেজ পাঠাইলেন। আমারে শাড়িতে না, অন্য পোশাকেই বেশি ভালো লাগে, শাড়ি ব্যাকডেটেড -ইত্যাদি। আমি কইলাম, আপনি কি বুঝেন যে আপনি একটা ছ্যাঁচড়া? সে এরপর আবার লম্বা ম্যাসেজ পাঠাইলো, 

আপনাকে তো কোনও বাজে কথা বলিনি, তবু আমি ছ্যাঁচড়া? কেন ছ্যাঁচড়া? 
আমি চুপ কইরা থাকি, সে আবার জিগায়, "হ্যালো! বলেন কেন আমি ছ্যাঁচড়া? "
নাউ ফ্রেন্ডস টেল মি,  ছ্যাঁচড়ারে আমি ক্যামনে বুঝাবো ছ্যাঁচড়ামো কারে কয়? 

বুয়েটের ঘটনায় "ব্লক করে দিলেই হয়" দের জন্য এইটা ভালো উদাহরন হইতে পারে। এরা হইলো নাফা ছাড়া গরু, এক জায়গায় লাত্থি খাইলে আরেকজায়গায় গিয়া "কিস ইউ" মারাবে। একটা বয়স্ক লোকের না বুঝার তো কোনও কারণ নাই যে আমি বিরক্ত হচ্ছি বা ইগনোর করছি কিন্তু সে লম্বা ম্যাসেজ পাঠায়েই যাবে। 

বাংলাদেশের অধিকাংশ পুরুষই বিরক্তি বুঝে না। কেন বুঝে না এইটা রীতিমতো গবেষণাযোগ্য। এইরকম অনেক পুরুষ আমি পাইছি যারা এই লোকের মতো "ইনোসেন্ট" কোয়াশ্চেন করে, "আপনাকে তো বাজে কিছু বলিনি, প্রশংশাই করেছি, তবু কেন রেগে যাচ্ছেন?" এই পুরুষদের ঠিক কোন ওয়েতে বুঝানো যায় যে, "নট ইন্টারেস্টেড" বইলা একটা ব্যাপার আছে। দ্বিতীয়ত, মেয়েদের এরা এতো সাবঅর্ডিনেট ভাবে যে  এই এতোকিছুর পরও স্টিল অবলীলায় এইসব চালায়ে যাওয়ার সাহস পায়। কোনও কিছুই কেয়ার করে না। 
সর্বশেষ কি বলায় সে কাল রাতে থামছে জানেন? বলছি, এরপর কিন্তু আমি স্ক্রিনশট দিবো, সেইটা কি ভালো হবে? 

তারপর সে থামছে। নেমিং, শেমিং, মিডিয়া ট্রায়ালের বিরুদ্ধে জোর রব উঠতেছে কিন্তু টুকটাক বিরক্তি এড়াতে মেয়েরা কি কেবলই ব্লক করে যাবে? এবং এক জায়গায় ব্লক খাইলে এই নাফা ছাড়া গরুডি আরেকখানে যাবে।। এইগুলা নিয়া তো আইন আদালতও করা যায় না। তাইলে স্ক্রিনশট এর বিকল্প কি?

Bootstrap Image Preview