Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ মঙ্গলবার, জুন ২০২১ | ৭ আষাঢ় ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

বিয়ের ১৬ দিনের মাথায় আম গাছে ঝুলছে নববধূর লাশ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭ মে ২০২১, ০১:৫৯ PM
আপডেট: ০৭ মে ২০২১, ০১:৫৯ PM

bdmorning Image Preview


বিয়ের মাত্র ১৬ দিনের মাথায় স্বর্ণা আক্তার মিম (১৯) নামের এক নববধূর মরদেহ আম গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) দুপুরে পুলিশ স্বর্ণার লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ধামতী উত্তরপাড়া বস্কর আলীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের স্বামীর দাবি, তাকে হত্যা করে গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। 

গত ১৯ এপ্রিল দেবিদ্বার উপজেলার ধামতী উত্তরপাড়া বস্কর আলীর বাড়ির মৃত মো. সামসুল হকের মেয়ে স্বর্ণা আক্তার মিমের সঙ্গে একই গ্রামের রহিম মাস্টারের ছেলে মো. কামরুল হাসানের প্রেমের সম্পর্কের কারণে কোর্টে বিয়ে হয়। মিম তার বড় বোনের বাসায় দেবিদ্বারে থাকতেন। তার মা নাজমা বেগম ঢাকায় আত্মীয়ের বাসায় যাওয়ার কারণে ছোট ভাইকে সঙ্গ দিতে মিম ধামতী বাবার বাড়িতে আসেন। বুধবার দিবাগত রাতে সাহরি খাওয়ার সময় হলে তার বড় বোন শিল্পী আক্তার মিমের মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে পাশের ঘরের চাচিকে ফোন করে বিষয়টি বলেন। তখন তারা মিমকে ঘরে না পেয়ে বিভিন্ন জায়গায় খুঁজতে থাকে। একপর্যায়ে ঘরের পেছনে পুকুরপাড়ে গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো মিমের মরদেহ ঝুলতে দেখেন তারা।

নিহত নববধূর স্বামী মো. কামরুল হাসান জানান, রাত ১২টার দিকে স্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা হয় তার। ভোর রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে তার মৃত্যুর সংবাদ পায়। তিনি বলেন, আমার স্ত্রী আত্মহত্যা করতে পারে না। হয়তো তাকে কেউ হত্যা করে, গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে।

দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আরিফুর রহমান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী মো. কামরুল হাসানকে থানায় আনা হয়েছে।

Bootstrap Image Preview