Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৭ শুক্রবার, মে ২০২১ | ২৪ বৈশাখ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

থানাগুলোর সামনে থেকে সরিয়ে নেয়া হলো মেশিনগান

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০২:০০ PM
আপডেট: ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০২:০০ PM

bdmorning Image Preview


১৪ এপ্রিল থেকে লকডাউনে বিশেষ দায়িত্ব পালনের জন্য ডিএমপি থানাগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তায় স্থাপিত বাঙ্কারগুলো সরিয়ে নেয়া হয়েছে। প্রয়োজনে আবার তা স্থাপন করা হবে বলে নিশ্চিত করেছেন ডিএমপির একাধিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় থানাগুলো থেকে হালকা মেশিনগান (এলএমজি) পোস্টগুলো উঠিয়ে নেয়া হয়।

ডিএমপির ওয়ারী বিভাগের উপকমিশনার শাহ ইফতেখার আহমেদ বলেন, ‘আমরা এখন লকডাউন ডিউটি নিয়ে ব্যস্ত। এমনিতেই আমাদের পুলিশ সদস্য সংখ্যায় কম, তাই লকডাউনের বিশেষ ডিউটির জন্য আমাদের এলএমজি পোস্টগুলো উঠিয়ে নেয়া হয়েছে। এখন শুধু থানার মূল ফটকে একজনের জায়গায় দুজন করে সেন্ট্রি থাকবেন।’

তিনি আরও জানান, হালকা মেশিনগান চালাতে থানার অধিকাংশ পুলিশ সদস্যই পারদর্শী। পুলিশ সদস্যদের নিয়োগ পরবর্তী প্রশিক্ষণে অস্ত্রভাণ্ডারের সব অস্ত্র চালনা শেখানো হয়। তবে তাদের মধ্যে পারদর্শী পুলিশ সদস্যদেরই কেবল এলএমজি পোস্টের দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।

রাজধানীর বংশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহিন ফকির বলেন, ‘সন্ধ্যা পর্যন্ত আমার থানায় এলএমজি পোস্ট ছিল। কালকে (বুধবার) লকডাউন ডিউটির জন্য আমাদের অনেক পুলিশ সদস্যদের রাস্তায় থাকতে হবে। সে জন্য এলএমজি পোস্টটি তুলে নেয়া হয়েছে।’

এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে থেকে সাধারণের চলাচলে কড়াকড়ি আরোপ করবে পুলিশ– এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুলিশ সদরদপ্তর।

নিরাপত্তার জন্য থানায় স্থাপিত এলএমজি পোস্টে একটি করে হালকা মেশিনগান রাখা হয়েছিল। পুলিশের অস্ত্রভাণ্ডারে থাকা এই অস্ত্র বিশেষ প্রয়োজনে ব্যবহারের নির্দেশনা রয়েছে বলে জানান ওয়ারী জোনের উপকমিশনার শাহ ইফতেখার আহমেদ।

ঢাকায় ওয়ারী ও মতিঝিল জোনের ১৫টি থানায় এ রকম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল।

তবে বাঙ্কার প্রত্যাহার কেবল রাজধানীর থানাগুলোর ক্ষেত্রে। দেশের অন্যত্র ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সিলেট, সুনামগঞ্জ ও চট্টগ্রামের হাটহাজারীর থানাগুলোয় এই বাড়তি প্রহরার ব্যবস্থা অব্যাহত থাকবে বলে নিউজবাংলাকে জানিয়েছেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন।

Bootstrap Image Preview