Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ৩১ শনিবার, জুলাই ২০২১ | ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত হলো শাহরিয়ার নিশানের তোলা ছবি

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০২১, ১০:৫২ PM
আপডেট: ২৫ মার্চ ২০২১, ১০:৫২ PM

bdmorning Image Preview


পড়াশোনা শেষ করে গতানুগতিক পেশার পেছনে না ছুটে তরুণদের অনেকেই এখন সৃজনশীল পেশাকে বেছে নিচ্ছেন। এসব পেশায় নিজের দক্ষতার পাশাপাশি শৈল্পিক জ্ঞান থাকা অপরিহার্য। এ রকমই একটি পেশা ফটোগ্রাফি। বর্তমানে এই পেশার যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। কেউ কেউ শুধুমাত্র শখের বসে নিজের শিল্পতৃপ্তি মেটাতে ফটোগ্রাফি করে।

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকা। নিউজ এজেন্সি, বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতেও (এনজিও) রয়েছে আলোকচিত্রীদের (ফটোগ্রাফার) চাহিদা। ফলে তৈরি হচ্ছে আলোকচিত্রীদের কর্মসংস্থান। সম্প্রতি স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের জার্নালিজম ডিপার্টমেন্টের ৪র্থ ব্যাচের কৃতি ছাত্র শাহরিয়ার জাবের নিশানের তোলা একটি ছবি নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত হয়েছে।

গত সোমবার (১৯ মার্চ) "ফর রোহিঙ্গা সারভাইভার্স, আর্ট বেয়ার্স উইটনেস" (For Rohingya Survivors, Art Bears Witness) এ হেডলাইনে একটি আর্টিক্যাল প্রকাশিত হয়। সেখানে শাহরিয়ার জাবের নিশানের তোলা ছবিটি দিয়ে আর্টিক্যালটির চিত্রায়ন হয়েছে।

মানসিক স্বাস্থ্য এবং মানসিক বিকাশের জন্য আর্ট একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, সেটির বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত "ফর রোহিঙ্গা সারভাইভার্স, আর্ট বেয়ার্স উইটনেস" (For Rohingya Survivors, Art Bears Witness) এই আর্টিক্যালটিতে। বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মাঝে লুকিয়ে আছে মায়ানমার আর্মির ভয়াবহ নির্যাতনের স্মৃতি। নির্যাতনের এসব স্মৃতি তাদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর বিশেষ প্রভাব বিস্তার করেছে।

অন্যদিকে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর নিজস্ব শিল্প সংস্কৃতি রয়েছে। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মানসিক স্বাস্থ্য এবং সংস্কৃতির বিকাশের ক্ষেত্রে আর্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে সেই বিষয়টিও এই আর্টিক্যালে উঠে এসেছে।

নির্যাতিত, নিগৃহীত, ভীতিকর অবস্থায় থাকা রোহিঙ্গারা আর্টের মাধ্যমে তাদের মানসিক চাপ কিছুটা হলেও লাগব করছে।

এ প্রসঙ্গে শাহরিয়ার জাবের নিশান বলেন, ‘সব বয়সের মানুষই ছবি তুলতে পছন্দ করে। তবে এখন অনেকেই এই ছবি তোলাকে পেশা হিসেবে নিচ্ছেন। কেউ প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন, কেউ ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করছেন। তবে যখন কারো তোলা ছবি স্বনামধন্য মাধ্যমে প্রকাশিত হয় তখন সেটি যেমন ভালোলাগার তেমনি সম্মানের। নিউইয়র্ক টাইমসে আমার ছবি প্রকাশ হওয়ায় আমার নিজের প্রতি আত্নবিশ্বাস বেড়ে গেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘পুঁথিগত বিদ্যার পাশাপাশি ব্যবহারিক বিদ্যারও প্রয়োজন আছে। এ দুটির সমন্বয়ে যে কেউ ফটোগ্রাফার হিসেবে নিজের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়তে পারে। সেজন্য সবার আগে প্রয়োজন সৃষ্টিশীল ও শৈল্পিক মন। আশা করি সামনে আরও ভাল কাজ করবো।’

প্রসঙ্গত, বর্তমানে শাহরিয়ার জাবের নিশান নিউইয়র্ক ভিত্তিক কমিউনিটি বেইজড পাবলিক আর্ট অর্গানাইজেশন ‘আর্টুলুশন’ এ ভিজুয়াল স্টোরি ট্রেলার হিসাবে কর্মরত আছেন।

নিউজ লিংক - For Rohingya Survivors, Art Bears Witness - The New York Times (nytimes.com)

Bootstrap Image Preview