Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ বুধবার, মে ২০২১ | ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

নবম শ্রেণির ছাত্রীকে আবাসিক হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:২৮ PM
আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:২৮ PM

bdmorning Image Preview


বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসে বরগুনার আমতলীতে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষক জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে আমতলী থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে পৌর শহরের ৮নং ওয়ার্ডের বাসুগী এলাকায়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নীলগঞ্জ গ্রামের নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী কয়েকদিন আগে পৌর শহরের ৮নং ওয়ার্ডের বাসুগী এলাকায় বোনের বাড়িতে বেড়াতে আসে। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকালে ভিকটিম পৌর শহরের পায়রা নদীর পাড়ে ব্লকে ঘুরতে যায়।

এ সময় বাসুগী গ্রামের নুরুল হকের ছেলে ৪ সন্তানের জনক ওই ভিকটিম ছাত্রীকে মোটরসাইকেলে তুলে পটুয়াখালী নিয়ে যায়। ধর্ষক জাকির ভিকটিমকে একটি আবাসিক হোটেলে রেখে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ওই দিন রাতেই ভিকটিমকে তার বোন জামাইয়ের বাসার সামনে রেখে যায়। ঘটনাটি রাতেই তার বোনকে জানালে মঙ্গলবার বোন জামাই আমতলী থানায় ধর্ষক জাকিরের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। 

মঙ্গলবার দুপুরে এসআই নাসরিন সুলতানার নেতৃত্বে আমতলী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৪ সন্তানের জনক ধর্ষক জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে। বিকেলে ধর্ষক জাকিরকে আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করলে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. সাকিব হোসেন তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

অপরদিকে ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই শিক্ষার্থী আমতলী উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি দিলে বিজ্ঞ বিচারক ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন।

আমতলী থানার ওসি (তদন্ত) মো. হেলাল উদ্দিন মুঠোফোনে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষক জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে বরগুনা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Bootstrap Image Preview