Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

চতুর্থ দফায় ভাসানচর পৌঁছেছেন দুই হাজার ১০ জন রোহিঙ্গা

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:৩৪ PM
আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:৩৪ PM

bdmorning Image Preview
ছবি: সংগৃহীত


চতুর্থ ধাপের প্রথম অংশে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ভাসানচরে পৌঁছেছেন দুই হাজার ১০ জন রোহিঙ্গা।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ২টার দিকে নৌবাহিনীর ৫টি জাহাজে চট্টগ্রাম থেকে রওয়ানা হয়ে তারা সেখানে পৌঁছান। এ সময় ঘাটে উপস্থিত ছিলেন নৌবাহিনী ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। 

নৌবাহিনীর কর্মকর্তারা জানান, চতুর্থ ধাপের এটি প্রথম অংশ। মঙ্গলবার আরও এক হাজার ৬০০ রোহিঙ্গা ভাসানচরে আসার কথা রয়েছে। এজন্য সকল ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

ভাসানচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মাহে আলম জানান, আজকের রোহিঙ্গাদের মধ্যে ৪৮৫ জন নারী, ৫৭৭ জন পুরুষ ও ৯৪৮ জন শিশু রয়েছে।ভাসানচরে আসার পর পরই তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্মীরা। পরে তাদের ওয়্যার হাউজে নিয়ে ব্রিফ প্রদান করা হয়। পরে ভাসানচরের ক্লাস্টারে স্থানান্তর করা হয়।

এর আগে তিন দফায় ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে ৬ হাজার ৬৮৮ জন রোহিঙ্গাকে। এর মধ্যে গত ৪ ডিসেম্বর প্রথম দফায় স্থানান্তর করা হয় ১ হাজার ৬৪২ জন, ২৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফায় ১ হাজার ৮০৪ জন, চলতি বছরের ২৯ ও ৩০ জানুয়ারি তৃতীয় দফার স্থানান্তর করা হয়েছে ৩ হাজার ২৪২ জনকে। এ ছাড়াও সমুদ্র পথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় উদ্ধার ৩০৬ জন রোহিঙ্গাকেও ভাসানচরে নেওয়া হয়।

এর আগে কক্সবাজার অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার শামসু দ্দৌজা নয়ন জানান, কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের আশ্রয়শিবির থেকে চতুর্থ দফায় নোয়াখালীর ভাসানচর যাচ্ছে আরও অন্তত ৩ হাজার ৬০০ জন রোহিঙ্গা। রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উখিয়া ডিগ্রি কলেজ মাঠ থেকে প্রথমে প্রায় ২ হাজার এবং পরের দিন সোমবার আরও ১ হাজার ৬০০ জন রোহিঙ্গাকে বিভিন্ন পরিবহনে চট্টগ্রাম পাঠানো হবে। সেখান থেকে তাদের (রোহিঙ্গাদের) নৌবাহিনীর জাহাজে করে ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্পে নেওয়া হবে।

জানা যায়, চতুর্থ ধাপের প্রথম দল অর্থ্যাৎ রবিবার উখিয়ার বালখালী ক্যাম্প নম্বর-৮, ৯, ১০, ১১, ১২, ও ১৮ নম্বর ক্যাম্প থেকে এবং সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) কুতুপালং-১ ইস্ট, ২ ইস্ট, এবং ২ ওয়েস্ট ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের চট্টগ্রামে নেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্র, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত হয়ে মায়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসা ২০২০ সালের ৫ আগস্ট পর্যন্ত হিসাব মতে রোহিঙ্গার সংখ্যা বর্তমানে ১১ লাখ ১৮ হাজার ৫৭৬ জন।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর থেকে ৭ লাখ ৪১ হাজার ৮৪১ জন মায়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিক বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে। এদের মধ্যে থেকে সরকার এক লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তরের পরিকল্পনা নেয়।

Bootstrap Image Preview