Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২০২১ | ২ বৈশাখ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

এই ৫ রাশির মানুষ কখনও কাউকে তোয়াক্কা করে চলে না !

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:০৮ PM
আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৬:০৮ PM

bdmorning Image Preview


কিছু মানুষ আছেন, যারা নিজের সিদ্ধান্ত ছাড়া অন্যকারও বুদ্ধিকেই কাজে লাগান না। তারা নিজে যেটা মনে করেন, সেটাই তাদের শেষ সিদ্ধান্ত হয়। অনেক সময় দেখা যায়, অন্যের বুদ্ধিতে লাভ হলেও তিনি নিজের সিদ্ধান্ত থেকে পিছপা হন না কখনই। রাশিচক্রে প্রতিটি রাশির নিজস্ব স্বভাব এবং গুন-ধর্ম থাকে, তাই প্রতিদিন গ্রহের স্থিতির অনুসারে তাদের সঙ্গে যুক্ত জাতক বা জাতিকার জীবনে নানা ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। এই কারণের জন্যই প্রত্যেক রাশির রাশিফল আলাদা-আলাদা হয়। রাশি অনুসারে আমাদের জীবনে অনেক কিছু নির্ভর করে। তেমনই এই ৫ রাশির জাতকরা কখনও কাউকে তোয়াক্কা করে চলে না। এই রাশির জাতকরা তীব্র বুদ্ধি সম্পন্ন হন। তারা নিজের মতামতকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেন। নিজেদের সিদ্ধান্তে এত বেশি অটল থাকেন যে, কারও সিদ্ধান্ত শোনার পর্যন্ত প্রয়োজন বোধ করেন না।

মিথুন রাশি: মিথুন রাশি নিজে কারও নিয়ন্ত্রণে চলেন না। বরং অন্যকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে বেশি পছন্দ করেন। এঁরা অন্যের সঙ্গে কোনও কথাই বেশি বলতে চান না। নিজের মতামত এঁদের শেষ কথা। নিয়ন্ত্রণ শব্দটিই খুব কঠিন। এঁরা অন্যের সিদ্ধান্ত দ্বিতীয়বার ভেবে দেখেন না। এঁদের জীবনের পথে কখনও কেউ প্রবেশ করতে পারেন না। নিজের নিয়ন্ত্রণে থাকাটাই এঁদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। সব রাশির মধ্যে মিথুন রাশির জাতকদের বুদ্ধি সবচেয়ে বেশি। নিজের বক্তব্য অন্যকে বুঝিয়ে দিতে এদের জুড়ি নেই। সহজেই নিজের কথায় অন্যকে প্রভাবিত করতে পারে এরা। প্রাণশক্তিতে ভরপুর মিথুন রাশির জাতকরা। সবার সঙ্গে সহজেই মেলামেশা করতে পারেন এরা। মজার মজার কথা বলে যে কোনও পার্টির চুম্বক হন এরাই। নাটুকে লোকজন মিথুন রাশির একেবারেই না-পসন্দ। যে কোনও বিষয়ে এরা সোজাসাপটা কথা বলতেই ভালোবাসেন।

তুলা রাশি: তুলা রাশির মানুষ নিজেদের গোপনীয়তা কখনওই কারও কাছে তুলে ধরেন না এবং অন্যের সিদ্ধান্তের মর্যাদাও দেন না। এঁদের নিজেদের ওপর বিশ্বাস থাকে প্রবল। তাই অন্যের নিয়ন্ত্রণে চলা একেবারেই পছন্দ করেন না। রাশি চক্রের সপ্তম রাশি তুলা। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ শুক্র। এদের মধ্যে যে লক্ষণ সাধারণত দেখা যায়, তা হল— এরা খুব সৌন্দর্য ও ভোগবিলাস প্রিয়, ভাবপ্রবণ, বিজ্ঞ, রাজনীতিক, প্রখর অনুমান শক্তিসম্পন্ন ও প্রেমিক। চেষ্টা করলে এরা ভালো শিল্পী, গায়ক, চিত্রকর, সুরকার, সাহিত্যিক, নৃত্যশিল্পী, অভিনেতা প্রভৃতি হতে পারে। এদের স্বাস্থ্য ভালো, রোগব্যধি বিশেষ হয় না। জাতক শান্তি প্রিয় তবে ভিরু নয়। চাকরি অপেক্ষা ব্যবসা জাতকের পক্ষে বিশেষ ফলপ্রদ। জাতক সৎকর্ম পরায়ণ, বহু ভাষায় অভিজ্ঞ। ধর্ম ভাব বেশি থাকলেও তা চাপা থাকে। খেতে খাওয়াতে খুব ভালবাসে। বিচার বিশ্লেষণ শক্তি প্রবল।

বৃশ্চিক রাশি: বৃশ্চিক রাশির মানুষদের বুদ্ধির জোর অত্যন্ত প্রখর। যতই বুদ্ধিমানপ্রতিপক্ষ হন, এঁদের চালাকির সঙ্গে জিততে পারবেন না। এঁরা নিজের সিদ্ধান্তে এত বেশি অটল থাকেন যে, কারও সিদ্ধান্ত শোনার পর্যন্ত প্রয়োজন বোধ করেন না। রাশি চক্রের অষ্টম রাশি বৃশ্চিক। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ মঙ্গল। এই রাশির ব্যক্তি প্রায়ই তেজী, নির্ভীক এবং একগুঁয়ে প্রকৃতির হয়। নিজের মতে চলতে ভালবাসে। মঙ্গল প্রধান লোক প্রায়ই স্বেচ্ছাচারি, প্রভুত্বকামী হয়ে থাকে। মঙ্গল অশুভ হলে অহংকারী, দাঙ্গাবাজ ও গুন্ডা প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা প্রায়ই প্রচুর ভু সম্পত্তি বা বাড়ির মালিক হয়। জীবনে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার জন্য ন্যায় অন্যায় বিচার করে না। পাইলট, সামরিক অফিসার, সৈনিক, পুলিশ অফিসার, পদস্থ সরকারি কর্মচারী, প্রভৃতি বৃত্তি অবলম্বন করলে জীবনে দ্রুত উন্নতি করবে। অধ্যাবসায়ের দিকে কঠোর পরিশ্রম করে নিজেকে নিজের ভাগ্য গড়ে তুলতে হবে।

মকর রাশি: মকর রাশির মানুষ তীব্র বুদ্ধি সম্পন্ন হন। এঁরা নিজের মতামতকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেন। হয়তো মন রাখার জন্য আপনার কথায় কখনওসায় দেবেন, কিন্তু অন্যের নিয়ন্ত্রণেকখনও বাধা পড়বেন না। রাশিচক্রের এই রাশি যথাযথভাবে এই রাশির অধীনে জন্মগ্রহণ করা মানুষের চরিত্র নির্ধারণ করে। যেহেতু মকর পর্বতারোহী, যে বরফ আচ্ছাদিত পাহাড়ের চূড়ায় ওঠে, যারা এই সাইনের অধীনে জন্মগ্রহণ করে তাঁরা সাধারনত নিঃসঙ্গ, মানুষের জীবনের প্রতি তাঁদের দৃষ্টিভঙ্গি বাস্তবসম্মত ও জড়বাদী এবং তাঁরা সবকিছু তাঁদের নিজেদের সুবিধার জন্য ব্যাবহার করার চেষ্টা করে। মকর, বাস্তববাদী, অতিসতর্ক, জেদি এবং গম্ভীর। তাঁরা খুব ভালোভাবে জানে কঠোর পরিশ্রম এবং প্রচেষ্টা ছাড়া কোনো সাফল্য পাওয়া যায় না। তাঁদের দায়িত্ব, ইচ্ছাশক্তি এবং কাজ করার ইচ্ছা আছে. তাঁদেরকে প্রায়ই গম্ভীর, ধ্যানমগ্ন দেখা যায়, কিন্তু পাশাপাশি তাঁরা উচ্চাভিলাষী, ধৈর্যশীল এবং সৎ। তাঁদের জীবনে সাধারণত খুবই সহজ, শান্ত এবং উদাসী। তাঁরা সময় নিয়ে সিদ্ধান্তগ্রহণ করেন, কিন্তু তা নিশ্চিত হয়ে করেন, তাঁরা একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সব তথ্য পেতে চেষ্টা করেন।

ধনু রাশি: ধনু রাশির মানুষ এরকম অভ্যাসের অধিকারী হন। এঁরা হয়ত কোনওসময়ে অন্যের কথা শোনেন, তবে একাত্ম ভাবে তা কখনওই পালন করেন না। এই রাশির জাতকরা খুব অহংকারী হয়ে থাকেন। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসী হন এই রাশির জাতক-জাতিকা। রাশি চক্রের নবম রাশি ধনু। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ বৃহস্পতি। এই রাশির ব্যক্তিরা ধার্মিক, সৎ, পরোপকারী এবং আদর্শবাদী হয়। ব্যক্তিত্বসম্পন্ন হওয়ায় অন্যের অধীনে কাজ করতে অসুবিধা ভোগ করে। এরা সধারণত কর্মকুশল, দেবদ্বিজে ভক্তিমান, দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, সত্যপ্রিয়, জ্ঞানি ও প্রতিভাশালী হয়। এদের বন্ধু সংখ্যা একটু কম। বিষয় সম্পত্তিতে আসক্তি কম। দৃঢ়তা ও স্পষ্টবাদিতার জন্য প্রায়ই মতান্তর ঘটে। প্রথম জীবনে নানা বাধা বিঘ্ন, মানসিক অস্থিরতা, অর্থাভাব ইত্যাদি প্রায়ই দেখা দেয়। প্রচণ্ড পরিশ্রমী হওয়ায় অবস্থা পাল্টে যায়।

Bootstrap Image Preview