Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২০২১ | ২ বৈশাখ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

ফের ডাকে সাড়া না দেওয়ায় ধর্ষণের দৃশ্য ফেসবুকে প্রচার

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪ মে ২০১৯, ০২:১৫ PM
আপডেট: ০৪ মে ২০১৯, ০২:১৫ PM

bdmorning Image Preview
প্রতীকী ছবি


চট্টগ্রামের পটিয়ায় ধর্ষণের পর ভিডিও করে ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগে আরিফ (৩০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করেছে এক নারী।

শুক্রবার (৩ মে) জেলার পটিয়া থানায় এ মামরা দায়ের করেন ধর্ষণের শিকার এক নারী। ধর্ষণের পর ফেসবুকে ভিডিওচিত্র ছেড়ে দেওয়া আরিফকে গ্রেফতার করেছে। তিনি পটিয়া উপজেলার শোভনদন্ডী গ্রামের আজিজুর রহমানের পুত্র।

ঘটনাটি চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভার মুন্সেফ বাজার মহিউদ্দিন বিল্ডিংয়ের আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই নারী জেলার পটিয়া পৌরসভার মুন্সেফ বাজার এলাকায় স্বামীর সাথে ভাড়া বাসায় থাকত। তার স্বামী একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করতেন। আর এ সুবাধে পরিচয় ঘটে স্থানীয়ভাবে আরিফ নামের এক যুবকের।

স্বামীর পরিচিত আরিফ প্রায় সময় সেই ভাড়া বাসায় যাওয়া-আসা করত। এর মধ্যে আরিফের সঙ্গে এ নারীর অবৈধ সম্পর্ক গড়ে উঠে। এ সুযোগে প্রায় সময় আরিফ এ নারীকে মুন্সেফ বাজার মহিউদ্দিন বিল্ডিংয়ের ভাড়া বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করতেন। কিছুদিন পূর্বে এ নারী স্বামীর সঙ্গে গ্রামের বাড়ি রাঙ্গুনিয়ায় চলে যান।

এরপরই আরিফ ফোনে এ নারীকে হুমকি দিয়ে বলেন, তোমার ভিডিও আমার কাছে আছে। তুমি ভালো চাওতো পটিয়া এসে আমার সাথে যোগাযোগ কর। না করলে কিন্তু তা প্রচার করে দেব।

আরিফের এ হুমকি ধমকিতে ওই নারী না আসায় ধর্ষণের ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ছেড়ে দেন আরিফ। এরপর বিষয়টি জানাজানি হলে গত ২ মে সেই নারী পটিয়া থানায় গিয়ে জানান। এরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে আরিফকে গ্রেফতার।

এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বোরহান উদ্দিন বলেন, ধর্ষণের শিকার ওই নারী আরিফের বিরুদ্ধে একটি নারী ও শিশু নির্যাতন অপরাধ দমন আইন ও অপরটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছেন। আরিফকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Bootstrap Image Preview