Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৭ শুক্রবার, মে ২০২১ | ২৪ বৈশাখ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

ব্যারিস্টার সুমনের ফেসবুক লাইভের ২ ঘণ্টার মধ্যেই সরে গেলো রামপুরা ব্রিজের সেই ঘর

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১ মে ২০১৯, ১০:২৩ PM
আপডেট: ০১ মে ২০১৯, ১০:২৩ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন। একটি আলোচিত নাম এই সময়ে। পেশায় একজন আইনজীবী। যিনি ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সমাজের অসঙ্গতিগুলো তুলে ধরছেন।

আজ বুধবার মে দিবসে রাজধানীর রামপুরা ব্রিজে ফুটপাতের ওপর হঠাৎ করে ঘর তৈরি করা ও ফুটপাত দখল নিয়ে একটি লাইভ করেন তিনি।

তবে লাইভ করার ২ ঘন্টার মধ্যে রামপুরা ব্রীজের ফুটপাতের উপর নির্মিত ঘর সরিয়ে দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। তার লাইভের পর কর্তৃপক্ষের তাৎক্ষণিক এই তৎপরতাকে ধন্যবাদ দিয়েছেন সুমন।

ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, লাইভ করার ২ ঘন্টার মধ্যে রামপুরা ব্রীজের ফুটপাতের উপর নির্মিত ঘর সরিয়ে দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ । অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাদের। আপনারা আর আমরা মিলেই গড়ব বাংলাদেশ।

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের নিয়ে রীতিমতো সামাজিক আন্দোলন শুরু করেছেন ব্যারিস্টার সুমন। যেখানেই অনিয়ম, সেখানেই ফেসবুক খুলে লাইভে আওয়াজ তুলছেন। শত শত ব্যবহারকারী সেই ফেসবুক লাইভ শেয়ার করে ছড়িয়ে দিচ্ছেন, আর হাজার হাজার দর্শক সেই ভিডিও নজরে নিতে বাধ্য হচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

সুমনের কিছু উল্লেখযোগ্য কাজ-

নরসিংদীর শিবপুরে রাস্তার প্রায় মধ্যখানে পল্লী বিদ্যুতের একটি খুঁটি। স্থানীয়দের ভাষ্যে, এই খুঁটির কারণে একাধিক দুর্ঘটনা ঘটলেও টনক নড়ছিল না কর্তৃপক্ষের। সুমন এই খুঁটি দেখেই তার ‘ফেসবুক লাইভ’ শুরু করেন। এর এক দিনের মধ্যেই সেটি অপসারণ করা হয়। তবে সুমন সেখানেই থেমে যাননি। সড়কে এই ধরনের খুঁটি সরাতে আদালতের দ্বারস্থ হন। এরই প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ঝুঁকিপূর্ণ বৈদ্যুতিক খুঁটি অপসারণের নির্দেশও জারি করেছেন। ফেসবুক লাইভে সোচ্চার তিনি এই ঘটনার আগে পুরান ঢাকার (কেরানীগঞ্জ থেকে রাজধানীর প্রবেশপথ) বাবু বাজার ব্রিজ (বুড়িগঙ্গা দ্বিতীয় সেতু) দিয়ে যাওয়ার সময় দেখেন, লাখ লাখ লোকের চলাচলের এতো গুরুত্বপূর্ণ সেতুটির ওপর বাতি প্রায় ছিলই না, যেজন্য অন্ধকারেই চলাচল করতে হতো যানবাহন এবং লোকজনকে। তাতে অনেক ছিনতাইয়ের পাশাপাশি দুর্ঘটনাও ঘটতে বলে ভাষ্য স্থানীয়দের। সুমন বিষয়টি ফেসবুক লাইভে তুলে ধরলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই বাতি বাতিতে জ্বলে ওঠে এই ব্রিজ।

এরপর রাজধানীর কাঁটাবন মোড়ে বালু ও ময়লা-আবর্জনার স্তূপ করে ফুটপাত দখল করে রেখেছিল একটি মহল। এতে জনচলাচলে দুর্ভোগ সৃষ্টির পাশাপাশি পরিবেশও দূষিত হচ্ছিল। সুমন সেটি তার ফেসবুক লাইভে প্রচার করলে দ্রুতই অপসারণ করা হয়। পুরান ঢাকার হাজীর বিরিয়ানির দোকানের সামনেই ছিল ময়লা-আবর্জনার স্তূপ। সুমনের ফেসবুক লাইভের পর অপসারণ হয় সেটাও।

মহাসড়কে গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখা, ফুটপাত দখলসহ এমন আরও অনেক অনিয়মের বিরুদ্ধে ফেসবুক লাইভে আওয়াজ তুলে সমাধান এনেছেন তিনি।

Bootstrap Image Preview