Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২০২১ | ২ বৈশাখ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

পিইসি পরীক্ষা কেন্দ্রে কিশোরীর সন্তান প্রসব!

বশির আল মামুন, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৭:২৬ PM
আপডেট: ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৭:২৬ PM

bdmorning Image Preview


চট্টগ্রামের বাঁশখালীর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা (পিইসি) চলাকালে কেন্দ্রে মধ্যে সন্তান জন্ম দিয়েছে এক কিশোরী মা।

আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় গণিত পরীক্ষা চলাবস্থায় বাঁশখালী সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

পরীক্ষা চলাকালে তার পেটের ব্যথা শুরু হলে তাকে পরীক্ষার হল থেকে পাশের রুমে নেওয়া হয়। খবর পেয়ে শিক্ষকরা বাঁশখালী হাসপাতালে খবর দিলে কর্তব্যরত নার্সিং ইনচার্জ শাহানা আক্তার সন্তান ওই ছাত্রীর সন্তান প্রসব করান।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বাঁশখালী হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডের ইনচার্জ নাহিদা আক্তার জানান, সন্তান ও মাকে স্কুল থেকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত ওই শিক্ষার্থী কোন আত্মীয়-স্বজন আসেনি।

সন্তান প্রসবকারী কিশোরী ছাত্রীটি নাম ফাতেমা বেগম (১৩), সে পুর্ব জলদী ভিলেজার পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী এবং বাঁশখালী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের জনৈক নুরুল আলমের কন্যা।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, সকাল ১০ টায় কেন্দ্রে পরীক্ষা শুরু হওয়ার কিছুক্ষন পর ওই কিশোরী ছাত্রীটির পেটের ব্যাথা শুরু হয়। এসময় পরীক্ষার হল থেকে তাকে পাশের রুমে নিয়ে যাওয়া হয়, সেখানে তার প্রসব যন্ত্রনা তীব্র হলে কেন্দ্রে দায়িত্বরত শিক্ষকরা জরুরী ভিত্তিতে বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে খবর পাঠায়। নার্সিং ইনচার্জ শাহানা আক্তার কেন্দ্রে গিয়ে নিরাপদে সন্তান প্রসব করায়। পরে নার্স শতাব্দী তালুকদারদের মাধ্যমে নবজাতকসহ কিশোরী মাকে নিয়ে হাসপাতালে বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়।

বাঁশখালী হাসপাতালের গাইনী ওয়ার্ডের ইনচার্জ নাহিদা আক্তার জানান, বিকেল পর্যন্ত তাদের কোন আত্বীয়-স্বজন হাসপাতালে আসেনি।

তবে মেয়েটির সাথে কথা বলে জানা যায়, বাড়ির পার্শ্ববর্তী যুবক জনৈক নেজাম উদ্দিন তাকে এক বছর পুর্বে পাহাড়ে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে কিশোরী মা ও তার নবজাতক সন্তান সুস্থ্ রয়েছে বলে জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Bootstrap Image Preview