Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৮ শুক্রবার, জানুয়ারী ২০২২ | ১৪ মাঘ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা চায় ভারত

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৫:১৫ AM
আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৫:২২ AM

bdmorning Image Preview


আগামী মাসের শুরুর দিকে ভারত সফরে আসছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। মস্কোর সঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র চুক্তি সই হওয়ার কথা রয়েছে ওই সফরে। তার আগে শনিবার ওয়াশিংটনের পৌঁছালেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। এ সফরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসবেন তিনি।

ভারতের কূটনৈতিক সূত্র বলছে, দোভালের এই সফর রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তির দিকে লক্ষ্য রেখেই। সদ্য শেষ হয়েছে আমেরিকার সঙ্গে টু প্লাস টু বৈঠক। সেখানেও এই চুক্তির বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।-খবর আনন্দবাজারপত্রিকা অনলাইনের।

ভারত আশাবাদী যে রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনার বিষয়টি নিয়ে আমেরিকার কাছে থেকে ছাড় আদায় করা সম্ভব হবে।

ওয়াশিংটনকে দোভাল বোঝাতে চেষ্টা করবেন যে রাশিয়ার সঙ্গে এই চুক্তি নিয়ে দীর্ঘদিন আগেই কথা শুরু হয়েছিল। তখন আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার প্রশ্নই ওঠেনি। তা ছাড়া এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা পাকিস্তানের কাছেও আছে।

তাই দক্ষিণ এশিয়ার রাজনীতিতে ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য নয়াদিল্লির পক্ষে তার নাগাল পাওয়াটা খুবই জরুরি। এর সঙ্গে আফগানিস্তানের নিরাপত্তার বিষয়টিও জড়িয়ে রয়েছে। রাশিয়া এই ক্ষেপণাস্ত্র চীনকেও বিক্রি করেছে বলে হোয়াইট হাউসকে জানাবে নয়াদিল্লি।

কূটনৈতিক সূত্রের মতে, ট্রাম্প প্রশাসনের ওপর আমেরিকার সমরাস্ত্র শিল্প সংস্থাগুলোরও প্রবল চাপ রয়েছে ভারতকে নিষিদ্ধ তালিকায় না আনার জন্য। লকহিড মার্টিন, বোয়িং অথবা রেথিয়নের মতো সংস্থাগুলো ভারতকে নিয়মিত যুদ্ধাস্ত্র সরবরাহ করে।

ভারতকে নিষিদ্ধ তালিকায় আনা হলে বিপুল অংকের আর্থিক লোকসানের মুখে পড়তে হবে সংস্থাগুলোকে।

দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ এখন রাশিয়ায়। এই নিয়ে গত ১১ মাসে তিন বার রাশিয়া গেলেন সুষমা। রুশ উপপ্রধানমন্ত্রী ইউরি বোরিসোভের সঙ্গে বৈঠক করেন সুষমা। পরে বলেন, মস্কোর সঙ্গে সম্পর্ককে সব থেকে বেশি গুরুত্ব দেয় দিল্লি।

Bootstrap Image Preview