Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ৩০ বুধবার, সেপ্টেম্বার ২০২০ | ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

নাজিম চৌধুরীকে নিয়ে অপপ্রচারকারীদের শাস্তি দাবি ঢালচরবাসীর

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২০, ০৬:৩৯ PM
আপডেট: ১৭ আগস্ট ২০২০, ০৬:৫১ PM

bdmorning Image Preview


বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা বসারত উল্ল্যা চৌধুরীর পুত্র সাবেক সচিব নাজিমউদ্দিন চৌধুরীর বিষয়ে অপপ্রচারকারীদের শাস্তি দাবি করেছে ভোলা জেলার মনপুরা উপজেলা ও ঢালচর গ্রামের বাসিন্দারা। ছয় দশকেরও বেশি সময় ধরে ঢালচর গ্রামে জনদরদী বলে পরিচিত নাজিম চৌধুরীর পরিবারের প্রতি ঈর্ষার বশে সম্প্রতি একটি মহলের কাল্পনিক অপপ্রচারের বিরুদ্ধে জোর প্রতিবাদ জানান তারা।

 

মনপুরা এক নম্বর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন হাওলাদার জানান, নাজিমউদ্দিন চৌধুরীর বাবা মরহুম বসারত উল্ল্যা চৌধুরী ঢালচরে ১৯৫৬ সালে ডেম্পিয়ার এগ্রিকালচার ও ডেইরী ফার্ম লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করেন। তখন থেকেই এ প্রতিষ্ঠান উন্নত পদ্ধতিতে চাষাবাদ ও পশুপালন করে আসছে। নাজিমউদ্দিনের বিরুদ্ধে চর দখলের অভিযোগ যে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, তার প্রমাণ মনপুরা উপজেলার ভূমি অফিসে রক্ষিত সরকারি রেকর্ডেই পাওয়া যায়।

 

ঢালচরের অধিবাসী বেলায়েত সরকার বলেন, ‘আঙগো বড়ো ছার (নাজিমউদ্দিন চৌধুরী) ম্যালা ভালা মানুষ, স্কুল করছে, ডাক্তারখানা করছে। আঙগো ছার সোনার পদক পাওইন্যা মানুষ। মাছ পালে, মহিষ পালে, ওহানে আঙগো ম্যালা লোক কাম করে। হেইরাম মাইনষেরে যারা খারাপ কয়, হ্যাগো বিচার হওনের কাম।’

 

খোঁজ নিয়ে জানা যায় নাজিম চৌধুরী প্রতিষ্ঠিত অবৈতনিক প্রাথমিক স্কুলটিই ঢালচরের একমাত্র স্কুল যা গত কয়েক বছর ধরে সমগ্র মনপুরা উপজেলার পিইসি ও প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষায় সবচেয়ে ভালো ফলাফল করে আসছে।

 

এ প্রসঙ্গে নাজিমউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আমার বাবা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্নেহধন্যকর্মী ছিলেন, তিনি একজন স্বনদপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা। পাাকিস্তানি সমর্থকেরা মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদের অধিকাংশ সম্পত্তি ধ্বংস করে দেয়। কাজেই ১৯৭১ সালে পাকিস্তানিদের সহায়তায় ঢালচরের জমি দখল করার যে কাহিনী কেউ প্রচার করছেন, তা একইসাথে অসত্য ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। ২০১৫ সালে বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের জ্বালানী বিভাগের সচিবের দায়িত্ব পাওয়ার পর আমি এ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর সাথে কাজ করেছি, যিনি যোগ্যতার বিচারে আমার চাকুরীর মেয়াদও বৃদ্ধি করেছেন।’

 

উল্লেখ্য, নিজামউদ্দিন চৌধুরী বর্তমানে বাংলাদেশ শুটিং স্পোর্ট ফেডারেশনের সভাপতি এবং বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

Bootstrap Image Preview