Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৪ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ২০২০ | ৮ আশ্বিন ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

গণমাধ্যমকে অপূর্ব-তানজিন তিশার হুঁশিয়ারি রহস্যটা কোথায় ?

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২০, ০৭:১৫ AM
আপডেট: ১৯ মে ২০২০, ০৭:১৫ AM

bdmorning Image Preview


ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বের সঙ্গে তার স্ত্রী নাজিয়া হাসান অদিতির বিচ্ছেদ হয়েছে। রবিবার (১৭ মে) বিকালে নিজের ফেসবুকে রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস 'ম্যারিড' পরিবর্তন করে 'ডিভোর্সড' লিখেন অপূর্বের স্ত্রী। পরবর্তীতে ফেসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে বিচ্ছেদের বিষয়টি স্বীকার করেন অপূর্বও।

অপূর্ব-অদিতির বিচ্ছেদের কারণ হিসেবে একজন অভিনেত্রীর নাম ভেসে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবং দেশের বেশক’টি সংবাদমাধ্যমেও খবরটি এসেছে। মূলত সেই খবরের সূত্র ধরেই সোমবার (১৮ মে) রাত ২টার দিকে এই হুঁশিয়ারি দেন সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা অপূর্ব।

নিজের ফেসবুক ওয়ালে দেওয়া ওই বক্তব্যে অপূর্ব বলেন, ‘ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে গসিপ করা এবং তির্যক, মিথ্যা, বানোয়াট মন্তব্য করে কারও কষ্ট বাড়িয়ে দেওয়ার মতো খারাপ কাজগুলো থেকে সবাই বিরত থাকবেন। এবং রসালো কোনও গল্প তৈরি করে সংবাদ করার চেষ্টা করবেন না, প্লিজ।’

অদিতি সম্পর্কে বলেন, ‘অত্যন্ত সম্মানের সাথে জানাচ্ছি, আমি এবং আমার স্ত্রী অদিতি অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ সমাধানের মধ্য দিয়ে সম্পর্কের আইনগত ইতি টেনেছি। কোনও সংবাদমাধ্যম এই ব্যাপারটাতে তৃতীয় কাউকে জড়িয়ে কোনও ধরনের ভুল সংবাদ প্রকাশ করলে আমি তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ব্যবস্থা নেবো। এরমধ্যে প্রকাশিত কিছু সংবাদের লিংক আমি সংগ্রহ করেছি।’

অপূর্ব অদিতির প্রসঙ্গ টেনে আরও বলেন, ‘আমি অদিতিকে সম্মান করি এবং আজীবন করবো। সুতরাং কোনোভাবেই অদিতিকে অসম্মান করে তার পাশে অন্য কারও নাম আমি সহ্য করবো না। ভুলে যাবেন না, অদিতি এখন আইনগতভাবে আমার স্ত্রী না থাকলেও সে আমার সন্তানের মা।’

এদিকে মিডিয়ার গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে এক অভিনেত্রীর সঙ্গে অপূর্বর সম্পর্কের কারণেই নাকি এই ডিভোর্স হয়েছে। সেখানে অপূর্বর সঙ্গে অভিনেত্রী তানজিন তিশার নামটি ভেসে আসে। এদিকে মধ্যরাতে অফিশিয়াল ফেসবুক ফ্যানপেজে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন তিশা।

তবে স্ট্যাটাসের কোথাও তানজিন তিশা অপূর্বর নাম উল্লেখ করেননি। নিচে তার সেই ফেসবুক পোস্টটি তুলে ধরা হলো।

যারা উদ্বিগ্ন তাদের জন্য,
আমি সাধারণত গুজবে সাড়া দিই না তবে আজ আমি অনুভব করছি যে কয়েকটি অনলাইন সংবাদপত্রে প্রকাশিত চলমান গসিপ বন্ধ করা উচিত। দয়া করে আমার নামটি ব্যবহার করবেন না এতে আমার সহশিল্পী এবং তার পরিবার এর চলমান পরিস্তিতি আরও খারাপ হবে। আমি সত্যিকার অর্থে বিশ্বাস করি যে কেউ আমার খ্যাতি কুখ্যাতে ইচ্ছাকৃতভাবে এটি তৈরি করছে।

আমার ভক্ত এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে,
দয়া করে এমন খবরে বিশ্বাস করবেন না যার কোনও সত্যতা নেই।  আমি আপনাদের সকলকে অনুরোধ করছি যেন এই নকল গুজব আর ভাগ না করে এবং ছড়িয়ে না দেয় কারণ ভুয়া খবর ছড়িয়ে দেওয়াও একটি সাইবার অপরাধ।

শ্রদ্ধেয় সাংবাদিকদের,
অনুরোধ করছি আপনাকে এই ধরনের ভিত্তিহীন গল্পে আমার নাম উল্লেখ না করা। যারা এই কাজটি চালিয়ে যাবেন তাদের আমার শেষ থেকেই আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

শুভেচ্ছান্তে,
তানজিন তিশা

Bootstrap Image Preview