Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ বুধবার, নভেম্বার ২০২০ | ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

হারভেস্টর মেশিনে কাটা হবে আড়িয়াল বিলের কৃষকের ধান

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ এপ্রিল ২০২০, ০২:০২ AM
আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০২০, ০২:০২ AM

bdmorning Image Preview


প্রথমবারের মতো মুন্সিগঞ্জের আড়িয়াল বিলে কম্বাইন্ড হারভেস্টর মেশিন দিয়ে ধান কাটা শুরু হয়েছে। সোমবার একটি কম্বাইন্ড হারভেস্টর ও একটি রিপার মেশিন পাওয়ার কথা জানিয়েছেন শ্রীনগর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা জিএম রুনা লায়লা।

একটি কম্বাইন্ড হারভেস্টর মেশিন দিয়ে প্রতি ঘণ্টায় এক একর জমির ধান কাটা ও মাড়াই করে বস্তাবন্দি করা যায়। কৃষক শুধু ধানের বস্তা ঘরে তুলবে। সেই হিসেবে এ মেশিনে বিঘা প্রতি ধান কাটার খরচ দুই হাজার টাকা। এর ফলে, সময় ও টাকা দুটোই কম লাগবে বলে জানান কৃষকরা। তারা জানিয়েছেন, কৃষি শ্রমিক দিয়ে বিঘা প্রতি ধান কাটার খরচ কমপক্ষে ৮ থেকে ৯ হাজার টাকা।

করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে শ্রমিক সংকট ও বিকল্প যন্ত্র না থাকায় আড়িয়াল বিলের শত শত বিঘা জমির বোরো ধান কাটা নিয়ে সংশয়ে পড়ে কৃষক। কারণ, ঝড়-বাদলে নষ্ট হয়ে যেতে পারে সোনার ফসল। সম্প্রতি, এ বিষয়ে প্রতিবেদন তুলে ধরে যমুনা টেলিভিশন। বিষয়টি আমলে নিয়ে দ্রুত একটি কম্বাইন্ড হারভেস্টর মেশিন পাঠানোর কথা জানান কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবদুল মুঈদ। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার একটি কম্বাইন্ড হারভেস্টর ও একটি রিপার মেশিন পাঠানো হয় সেখানে।

চলতি সপ্তাহেই চাহিদা অনুযায়ী আরও দুটি কম্বাইন্ড হারভেস্টর ও একটি রিপার বরাদ্দ পাওয়ার কথাও জানান উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা জিএম রুনা লায়লা। পুরো উপজেলার বোরো ধান কাটতে আরও মেশিনের চাহিদাপত্র পাঠানোর কথাও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, আড়িয়াল বিলে বোরো মৌসুমে প্রায় ৪০ হাজার মেট্রিক টন ধান উৎপাদন হয়। চলতি বছরেও বাম্পার ফলন হয়েছে বলে জানান স্থানীয় কৃষকরা। ইতিমধ্যে, কিছু কিছু কৃষি শ্রমিক ধান কাটতে এসেছে বলেও জানান তারা।

Bootstrap Image Preview