Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ৩০ শুক্রবার, অক্টোবার ২০২০ | ১৫ কার্তিক ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

করোনার জন্য চীনের কাছে ১৩০ বিলিয়ন পাউন্ড ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে জার্মানি

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০২০, ০৫:৫৬ PM
আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০২০, ০৬:০৩ PM

bdmorning Image Preview


করোনাভাইরাসজনিত উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য চীনের কাছে ১৩০ বিলিয়ন পাউন্ড ক্ষতিপূরণের বিল পাঠিয়েছে জার্মানি। এর মধ্য দিয়ে করোনাভাইরাস মহামারীর জন্য চীনকে দায়ী করার ক্ষেত্রে চাপ প্রয়োগে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের সঙ্গে যোগ দিল দেশটি। এদিকে জার্মানির এ দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বেইজিং।

করোনা মহামারীর প্রভাবজনিত কারণে বেইজিংয়ের কাছে বার্লিনের ১৩০ বিলিয়ন পাউন্ড প্রাপ্য- দেশটির একটি গুরুত্বপূর্ণ সংবাদপত্রে এমন খবর প্রকাশের পরই চীনের ওপর ক্ষোভ বাড়ে জার্মানির। খবর এক্সপ্রেস ইউকের।

জার্মানির সর্ববৃহৎ ট্যাবলয়েড সংবাদপত্র বিল্ড এ সপ্তাহে এ বিতর্কে যোগ দেয়। পত্রিকাটি চীনের কাছে জার্মানির ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১৪৯ কোটি ইউরোর (১৩০ কোটি পাউন্ড) একটি খসড়া তালিকা এঁকে দেখায়।

এ তালিকায় ২৭ বিলিয়ন ইউরো চাওয়া হয় পর্যটনখাতে ক্ষতিপূরণ হিসেবে, ৭.২ বিলিয়ন ইউরো জার্মানির ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ক্ষতির জন্য, প্রতি ঘণ্টায় এক মিলিয়ন করে ক্ষতিপূরণ জার্মান এয়ারলাইন্স লুফথানসার জন্য এবং ৫০ বিলিয়ন ইউরো জার্মানির ক্ষুদ্র ব্যবসার ক্ষতি হিসেবে।

বিল্ড হিসাব করে দেখায় যে, যদি জার্মানির জিডিপি ৪.২ শতাংশ কমে তাহলে প্রতি নাগরিক ১ হাজার ৭৮৪ ইউরো (১ হাজার ৫৫০ পাউন্ড) ক্ষতির সম্মুখীন হবে, যা চীনের কাছে তাদের প্রাপ্য। 

এই ক্ষতিপূরণ দাবির প্রতিক্রিয়ায় চায়না বলেছে, 'এ অবস্থান জেনোফোবিয়া (বিদেশিদের প্রতি অকারণ ভীতি) এবং জাতীয়তাবাদকে উৎসাহ দিচ্ছে'।

এর আগে শনিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হুঁশিয়ারি দেন যে, যদি চায়না জেনেশুনে এ ভাইরাস ছড়িয়ে থাকে তবে এজন্য তাদের পরিণতি ভোগ করতে হবে।

Bootstrap Image Preview