Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৭ মঙ্গলবার, জুলাই ২০২০ | ২২ আষাঢ় ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

বিদ্যালয়ের ছাদে নিয়ে ছাত্রীদের পর্ন দেখিয়ে যৌন হেনস্তা করতেন প্রধান শিক্ষক!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৯:১০ PM
আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৯:১০ PM

bdmorning Image Preview


বেশ কিছুদিন ধরে বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের পর্নো ছবি দেখানো এবং যৌন হেনস্তার অভিযোগে গিয়াস উদ্দিন নামের এক প্রধান শিক্ষককে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মাইজবাড়ি এলাকা থেকে ওই প্রধান শিক্ষককে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

গিয়াস উদ্দিন শহরের বিলপাড় এলাকার বাসিন্দা। তিনি মাইজবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, মাইজবাড়ি বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির চার ছাত্রীকে কিছুদিন ধরে নানা অজুহাতে বিদ্যালয়ের ছাদে নিয়ে যেতেন প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন। সেখানে তাদের মোবাইলে পর্নো ছবি দেখাতেন তিনি। পর্নো ছবি না দেখলে পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেয়াসহ নানা ভয়ভীতি দেখাতেন।

মঙ্গলবারও চার ছাত্রীর মধ্যে দুই ছাত্রীকে ছাদে নিয়ে পর্নো ছবি দেখানোর চেষ্টা করেন প্রধান শিক্ষক। অন্য দুই ছাত্রী বিষয়টি তাদের অভিভাবকদের জানান। পরে স্থানীয়রা বিদ্যালয় ঘেরাও করে ওই শিক্ষককে মারধর করেন। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে উদ্ধার করে তাদের হেফাজতে নেন।

অভিভাবকরা বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন নানা অজুহাতে ছাত্রীদের ছাদে নিয়ে খারাপ ছবি দেখাতেন। হাত ধরে টানাটানি করতেন। ছবি না দেখলে নানাভাবে হয়রানি করতেন। মঙ্গলবার একই কাজ করলে স্থানীয়দের নিয়ে বিদ্যালয় ঘেরাও করা হয়।

সদর থানার ওসি সহিদুর রহমান জানান, বিদ্যালয়ের শিক্ষককে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। ছাত্রীদের পরিবারের লোকজন অভিযোগ দেয়ার জন্য থানায় এসেছেন।বিদ্যালয়ের শিক্ষককের এ ধরনের কর্মকাণ্ডে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

Bootstrap Image Preview