Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৪ সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

আল্ট্রাসনোগ্রাফির মাধ্যমে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় পরীক্ষা বন্ধে হাইকোর্টে রিট

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারী ২০২০, ০৪:৫১ PM
আপডেট: ২৬ জানুয়ারী ২০২০, ০৪:৫১ PM

bdmorning Image Preview


গর্ভে থাকা শিশুর লিঙ্গ পরিচয় জানার উদ্দেশ্যে পরীক্ষা বন্ধ এবং লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান আজ রবিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট আবেদন দাখিল করেন। রিট আবেদনে স্বাস্থ্য, নারী ও শিশু এবং সমাজ কল্যাণ সচিবকে বিবাদি করা হয়েছে। 

গর্ভবতী নারী ও অনাগত সন্তানের সুরক্ষা নিশ্চিত করতেই এই রিট আবেদন করা হয়েছে বলে জানান রিট আবেদনকারী। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চে এই রিট আবেদনটির ওপর শুনানি হতে পারে বলে জানান তিনি। 

গর্ভবতী নারী ও অনাগত সন্তানের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে এবং গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় জানার উদ্দেশ্যে পরীক্ষা ও লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে গতবছর পহেলা ডিসেম্বর লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়। নোটিশে সকল সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল, ডায়াগনস্টিক, ক্লিনিক কর্তৃপক্ষকে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ বন্ধ করতে নির্দেশনা জারি করতে বলা হয়। 

নোটিশে বলা হয়, চীন-ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পেটে থাকা সন্তানের লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। স্বাস্থ্য, নারী ও শিশু এবং সমাজ কল্যাণ সচিবকে পাঠানো নোটিশের জবাব না পেয়ে রিট আবেদন করা হয়।

আইনজীবী ইশরাত হাসান বলেন, আমাদের দেশে এখনও বেশির ভাগ মানুষের ছেলে সন্তানই কাম্য। তারা মনে করেন, ছেলেরা বংশের ধারক। ছেলে সন্তান ভবিষ্যতে তাদের সুরক্ষা দেবে। এ অবস্থায় যদি গর্ভের সন্তানের লিঙ্গ পরিচয় জানা যায় এবং তা মা-বাবার কাঙ্খিত না হয়, তাহলে তা গর্ভবতী মায়ের শারিরীক ও মানসিক অবস্থার ‌ওপর প্রভাব ফেলে। 

তিনি বলেন, মা যদি হতাশায় ভোগেন, তবে শিশুর মস্তিস্ক বিকাশ ঠিকভাবে হয় না। তাই বাংলাদেশে নারী ও শিশুদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে পেটের শিশুদের লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ বন্ধ হওয়া জরুরি।

Bootstrap Image Preview