Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৮ শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

৪ কোটি খরচ করে মার্কিন যুবতীকে বিয়ে করলেন বাংলাদেশি লেসবিয়ান যুবতী!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারী ২০২০, ০৮:৫৭ PM
আপডেট: ২৫ জানুয়ারী ২০২০, ০৮:৫৭ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


মার্কিন নারীকে বিয়ে করেছেন বাংলাদেশি লেসবিয়ান যুবতী। তার নাম ইয়াশরিকা জাহরা হক (৩৪)। নিজের পছন্দে তিনি যে নারীকে বিয়ে করেছেন তার নাম এলিকা রুথ কুকলি (৩১)। এতে বাংলাদেশি লেসবিয়ান যুবতীর ব্যয় হয়েছে প্রায় ৪ কোটি টাকা।

ইয়াশরিকাই প্রথম বাংলাদেশি লেসবিয়ান নারী যিনি উত্তর আমেরিকায় ভালোবেসে আরেক লেসবিয়ান নারীকে বিয়ে করলেন।

'দে বন্ডেড ওভার ক্যারামেল পাই' হেডলাইনে নিউইয়র্ক টাইমসের এক খবরে জানা যায়, এই দুই লেসবিয়ান নারী গত বছরের ৭ জুন (২০১৯) বাংলাদেশি কায়দায় বিয়ে করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের রেপিড সিটি সাউথ ডাকোটার বাংলাদেশি বাসীন্দা ইয়াসমীন হক এবং ইয়ামীন হকের কন্যা ইয়াশরিকা ওয়াশিংটনের জর্জটাউন ইউনিভার্সিটি থেকে পড়াশোনা করেছেন। ২০১৫ সালে একটি এলজিবিটি মার্চে মার্কিন যুবতী এলিকা রুথ কুকলির (৩১) সঙ্গে প্রথমবারের মত দেখা হয় জাহরা হকের। সেখান থেকেই ধীরে ধীরে পরিণয়। আর সেই ভালোলাগা থেকেই ২০১৯ এর ৬ জুন তারা বিবাহবন্ধনে আবন্ধ হন। তাদের এই বিয়ে আমেরিকায় হলেও বিয়ের সমস্ত আয়োজনেই ছিল বাঙালিয়ানার ছোঁয়া।

নিজেদের প্রেম সম্বন্ধে ইয়াশরিকা বলেন, কুকলিকে প্রথম দেখার পর আমার যে কেমন লেগেছিল তা বলতে পারব না। তখন সে একা ছিল। আমিও তার প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠেছিলাম। পরেরবার দেখা হবার পর আমাদের কথা হয়।

কয়েকমাস পর তাদের আবার দেখা হয় এক বন্ধুর পার্টিতে। কুকলি বলেন, আমি ততদিনে বুঝতে পেরেছিলাম যে আমাকে ইয়াশরিকা পছন্দ করে। সেদিন আমরা সারারাত একসঙ্গে গল্প করেছিলাম।

কুকলি আরও বলেন, সে খুবই মায়াবী আর যত্মশীল একটি মেয়ে। যাই হোক না কেন সে আমার পাশেই থাকবে।

ইয়াশরিকা বলেন, তখনও অবিবাহিত থাকার বিষয়টি ধরে রাখার চেষ্টা করছিলাম, কিন্তু মনে হয়েছিল চুম্বককে একসাথে টেনে তোলা হচ্ছে, এবং আমি কেবল পালানোর চেষ্টা করছিলাম। কারণ আমি মনে করি না কারও সাথে থাকা আমার পক্ষে সঠিক ছিল। বিয়ের পর এখন আমার মনে হয় যে এতদিনে দুটো চুম্বক জোড়া লাগল। আমি খুবই খুশি।

ইয়াশরিকা জাহরা হক ওয়াশিংটনের জর্জটাউন ইউনিভার্সিটি থেকে পড়াশোনা করেছেন। তারপর ইলিনয়েসের নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি থেকে আইন বিষয়ে ডিগ্রি নিয়েছেন। তিনি বর্তমানে একটি ল’ ফার্মে এসোসিয়েট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

Bootstrap Image Preview