Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৪ সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩-০ গোলের দাপুটে জয়ে সেমিতে বাংলাদেশ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারী ২০২০, ০৭:২৮ PM
আপডেট: ১৯ জানুয়ারী ২০২০, ০৭:২৮ PM

bdmorning Image Preview


জিতলেই সেমি-ফাইনাল-এমন সমীকরণের ম্যাচে বাংলাদেশ জিতল বেশ দাপটের সঙ্গেই। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে শ্রীলঙ্কাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে বাংলাদেশ পেয়ে গেল সেমি-ফাইনালের টিকিট। ম্যাচের নায়ক স্ট্রাইকার মতিন মিয়া। প্রায় একক কৃতিত্বে দুটো গোল করেন তিনি। সেমি-ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আফ্রিকার দেশ বুরুন্ডি। সেমিতে উঠার এই সুখকর দিনে বাংলাদেশ দলের জন্য একমাত্র দুঃখ তপু বর্মনের লাল কার্ড। যে ফাউলের জন্য তপু বর্মনকে রেফারি লালকার্ড দেখালেন সেটা যে আসলে কোনো ফাউলের পর্যায়ে পড়ে না! কিন্তু রেফারি কি মনে করে লালকার্ড বের করে আনেন। দল শেষ চারে উঠলেও তপু বর্মনের এখন সেই ম্যাচে খেলা হচ্ছে না।

১৯ জানুয়ারি, রোববার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে গ্রুপের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের আক্রমণাত্মক ফুটবলের সামনে পাত্তাই পায়নি শ্রীলঙ্কা। টুর্নামেন্ট থেকে সবার আগে বিদায় নিয়ে বাড়ির পথ ধরছে প্রতিবেশী দেশটি।

ম্যাচের প্রথমার্ধে ১৭ মিনিটের সময় বাংলাদেশ এগিয়ে যায় মতিন মিয়ার গোলে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে এটি মতিন মিয়ার প্রথম গোল। দ্বিতীয়ার্ধেও গোলের নায়ক সেই মতিন মিয়া। ম্যাচের ৮৩ মিনিটের সময় দলের আরেক স্ট্রাইকার ইব্রাহিমের গোলে ৩-০ গোলের আনন্দে ভাসে বাংলাদেশ দল।

জয় ছাড়া টুর্নামেন্টে সামনে বাড়ার কোনো বিকল্প নেই। এটা জেনেই বাংলাদেশ এই ম্যাচ জেতার জন্য মরিয়া হয়ে উঠে। একাদশ সাজায় তিন স্ট্রাইকার নিয়ে। মতিন মিয়া, ইব্রাহিম এবং মাহবুবুর রহমান-এই ত্রয়ীর আক্রমণে শ্রীলঙ্কার রক্ষণভাগ ম্যাচের প্রথম মিনিট থেকেই ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়ে!

১৭ মিনিটের সময় মতিন মিয়ার গোলে ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার সুখ পায় বাংলাদেশ। এই অর্ধে আরো অন্তত তিনটি গোলের সুযোগ হারায় দল। শুরুর ৪৫ মিনিটের বেশিরভাগ সময়ে বল থাকে শ্রীলঙ্কার সীমান্তে। বাংলাদেশের গোলকিপারকে এই অর্ধে তেমন কোনো পরীক্ষায় পড়তে হয়নি। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের তেজ বজায় রাখে বাংলাদেশ। ৬৫ মিনিটের সময় বাম প্রান্ত থেকে একক কৃতিত্বে বল নিয়ে শ্রীলঙ্কার ডি বক্সে ঢুকে পড়েন মতিন মিয়া। সঙ্গে থাকা মার্কারকে গতিতে হারিয়ে সামনে থাকা গোলকিপারকেও ডজে পরাস্ত করেন। ফাঁকা পোস্টে আলতো ভঙ্গিতে বল জড়িয়ে দেন, গো...ও...ল (২-০)।

ম্যাচের শেষদিকে শ্রীলঙ্কা গোল শোধের জন্য সম্মিলিত চেষ্টা চালায়। কিন্তু বাংলাদেশের কড়া রক্ষণভাগের বিরুদ্ধে লড়াইটা জমাতে পারেনি তারা। ম্যাচের ৮৩ মিনিটের সময় বদলি স্ট্রাইকার রকিব হাসানের ক্রস থেকে পাওয়া বলে পা ছুঁয়ে গোল করেন ইব্রাহিম (৩-০)।

বোনাস গোল পেয়ে দারুণ উজ্জীবিত বাংলাদেশ দল বাকি সময়েও ভালো ফুটবল খেলে। ম্যাচ জিতে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রুপু বলছিলেন- ‘আমরা এখন সেমি-ফাইনালে খেলছি। প্রথম টার্গেট পুরো হয়েছে। এবার সেমি-ফাইনাল জিতে আমরা ফাইনালে নাম লেখাতে চাই।’

Bootstrap Image Preview