Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৭ মঙ্গলবার, জুলাই ২০২০ | ২৩ আষাঢ় ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

কেরানিগঞ্জের সেই প্লাস্টিক কারখানা সিলগালা, মালিক উধাও

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৩১ PM
আপডেট: ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৩১ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে আলোচিত কেরানীগঞ্জে সেই প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড নামে কারখানাটি সিলগালা করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ কারখানাটি সিলগালা করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) শুভাঢ্যা এলাকায় একই মালিকের অপর একটি প্লাস্টিক কারখানা সিলগালা করে উপজেলা প্রশাসন।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডে নিহত শ্রমিক আলমের ছোট ভাই জাহাঙ্গীর বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে কারখানার মালিক নজরুল ইসলামসহ অজ্ঞাত ১০-১২ জনের নামে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসিকুজ্জামান বলেন, মামলায় বাদী অভিযোগ করেছেন, কারখানাটিতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা না নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে শ্রমিকদের দিয়ে কাজ করানো হতো। ছিল না পানির মজুদ। এমনকি জরুরি নির্গমন পথও ছিল না। সরকারের অনুমোদন না নিয়ে এমন পরিবেশে কারখানা পরিচালনা করে শ্রমিকদের মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে কারখানা কর্তৃপক্ষ। মামলায় মালিক নজরুল ইসলামসহ অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করা হয়েছে।

তদন্ত কর্মকর্তা আরও জানান, মামলা দায়েরের পর গা ঢাকা দিয়েছেন কারখানার মালিক নজরুল ইসলাম। তার খোঁজে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

কারখানা সিলগালার বিষয়ে কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত কারখানাটি পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক। তার নির্দেশেই কারখানাটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। এর আগে একই মালিকের অপর একটি কারখানা সিলগালা করে দেয়া হয়।

তিনি আরও জানান, দুটি কারখানাই আবাসিক এলাকার মধ্যে স্থাপন করা হয়েছে। কারখানা পরিচালনায় সরকারের অনুমোদন নেয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, বুধবার বিকালে চুনকুটিয়া হিজলতলা এলাকায় প্লাস্টিকের ওয়ানটাইম থালা, বিরিয়ানির প্যাকেট ও গ্লাস তৈরির ওই কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ব্যাপক প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

 

Bootstrap Image Preview