Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৭ শুক্রবার, আগষ্ট ২০২০ | ২২ শ্রাবণ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে যেসব অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:৪৬ PM
আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:৪৬ PM

bdmorning Image Preview


প্রত্যেকেই নিজের মতো করে জীবন যাপন করে। নিজের গণ্ডির ভেতর থাকতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন বেশিরভাগ মানুষ। সেই অভ্যাসে সামান্য হলেও পরিবর্তন আসে জীবনে প্রেম এলে। একা থাকা আর কারো সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার মধ্যে পার্থক্য কিছুটা থাকেই। ছোটখাটো নানা জিনিসের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই নতুন সম্পর্ক শুরু করে মানুষ।      

নতুন সম্পর্ক তৈরি হলে দুই পক্ষকেই মানিয়ে নিতে হয় কিছু কিছু জিনিস। খবর রাখতে হয় অপরের পছন্দ অপছন্দের দিকেও। সে কারণেও বদল আসে কিছু অভ্যাসে। কিছু ক্ষেত্রে মানিয়ে নিতেও অসুবিধা হয়।আর তখনই সমস্যা তৈরি হয় সদ্য তৈরি হওয়া সম্পর্কে।

সে কারণে কিছু অভ্যাসে সামান্য বদল এনে সম্পর্ক ও জীবনে ভারসাম্য বজায় রাখার প্রয়োজন পড়ে কখনো কখনো। নতুন সম্পর্কে জড়ালে নিজের কোন অভ্যাসগুলোতে রাশ টানা জরুরি সে সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা থাকা দরকার।

এজন্য নিজের ব্যক্তিগত সময় ভাগ করে নিন সঙ্গীর সঙ্গে। মাঝেমধ্যে সম্পূর্ণ একা সময় কাটাতে চাওয়াটা দোষের নয়। সম্পর্কে থেকেও সেই সময় বের করে নেওয়া যায়। কিন্তু এই একা সময় কাটানোর ইচ্ছা যদি অভ্যাসে পরিণত হয়, সম্পর্কে জড়ালে তা বদলাতে হবে। সারাক্ষণ একা থাকতে চাওয়ার অভ্যাসে আপনার প্রেমের সম্পর্কের জন্যও ক্ষতিকর। সেজন্য একে অপরকে সময় দিন। পরস্পরের সান্নিধ্যে খুঁজে নিন জীবনের আনন্দ।

আবার অনেকেই একা ঘুরতে যেতে ভালোবাসেন। জীবনে নতুন মানুষ আসলে যে আপনার একা বেড়াতে যাওয়ার অভ্যাস বন্ধ হয়ে যাবে, তা নয়। তবে একা ঘুরতে যাওয়ার পাশাপাশি দু’জন বা পরিবারের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়ার অভ্যাসটাও করে ফেলুন। 

কোনো কোনো ট্রিপে নিজের সঙ্গীকে ও পরিবারের অন্যদের নিয়ে যান। ফলে আপনারা একে অপরের সঙ্গে একান্তে অনেকটা সময় কাটাতে পারবেন। জেনে নিতে পারবেন একে অপরের পছন্দ-অপছন্দগুলো।

দীর্ঘদিন একা থাকার কারণে অনেকের মধ্যেই একটা স্বাধীন মনোভাব জন্ম নেয়। তবে সম্পর্ক সুন্দর রাখতে চাইলে আপনাকে নিজের সঙ্গীর ওপর নির্ভর হতেও শিখতে হবে। সম্পর্কে জড়ানো মানেই স্বাধীনতা বিসর্জন দেওয়া নয়। আত্মনির্ভর হয়েও প্রেমিক বা প্রেমিকার ওপর কিছু কিছু বিষয়ে নির্ভর করা যায়। সম্পর্ক জড়ানোর সময় এই কথাগুলো মাথায় রাখুন।

আর সম্পর্কে থাকলে ইগোকে কিছুটা বিসর্জন দিতে হয়। এমনিতেই অকারণে ইগো জীবনে ক্ষতি করে। সঙ্গীর সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিও বাড়তে পারে এতে। কোনো বিষয়ে মতের অমিল হলে দরকারে নিজে এগিয়ে মিটমাট করে নিন। সম্পর্কের শুরুতে আপনি উদারতা দেখাতে পারলে আজীবন সঙ্গীও এই সম্পর্ককে সম্মান করতে শিখবে। কোনো কারণে রাগ বা অভিমান হলে অন্তর্মুখী স্বভাবের মানুষ হলেও খারাপ লাগা-ভালো লাগার প্রকাশ করুন। লক্ষ্য রাখুন নিজের নানা কাজ ও কথায় ভালোবাসাও যেন প্রকাশ পায়।

Bootstrap Image Preview