Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১০ সোমবার, আগষ্ট ২০২০ | ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতাসহ ৩ জনকে কুপিয়ে যখম

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ মে ২০১৯, ০৫:২৬ PM
আপডেট: ১২ মে ২০১৯, ০৫:২৬ PM

bdmorning Image Preview


চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ছাত্রলীগ নেতাসহ ৩ জনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে যখম করা হয়েছে।

শনিবার (১১ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার কাঞ্চননগর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের কাজীপাড়া কাঠতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এতে গুরুতর আহত হন উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সাবেক সদস্য ও কাঞ্চননগর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের খান মোহাম্মদ পাড়ার আব্দুল খালেকের ছেলে পারভেজ (২৬), ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের ছর পাড়ার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা আব্দুন নবীর ছেলে সুজন। ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ ছাড়া অপর দু’জন পেশায় ব্যবসায়ী।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, আহত পারভেজ বাইকযোগে বাড়ি থেকে ইফতারী নিয়ে দোকানে আসার পথে কাজীপাড়া কাঠলতলা এলাকায় আসলে গতিরোধ করে ওই এলাকার মৃত শাহ আলমের ছেলে স্থানীয় সন্ত্রাসী রেজা মিয়া (৩২)। এ সময় পাওনা টাকা নিয়ে তাদের উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে রেজার হাতে থাকা ধারালো কিরিচের আঘাতে মারাত্মক যখমের শিকার হয় পারভেজ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে পারভেজ এর বন্ধু মাসুদ ও সুজন। এসময় তাদেরকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় রেজা।

পরবর্তীতে রাত ৮টার দিকে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ফটিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে (চমেক) প্রেরণ করা হয়।

ফটিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎক অতনু চৌধুরী জানান, তাদের শরীরে বিভিন্ন অংশে মারাত্মক যখম হয়েছে। অধিকতর চিকিৎসার জন্য তাদের চমেকে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, আহতদের সাথে হামলাকারী রেজা’র দীর্ঘদিন ধরে নানা আর্থিক লেনদেন ও গাছ-বাগান সংক্রান্ত বিরোধ ছিল।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রশিদ উদ্দীন চৌধুরী কাতেব বলেন, ‘সন্ত্রাসী রেজা একজন মাদক ব্যাবসায়ী এবং এর আগেও নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকায় জেল খেটেছে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলাও রয়েছে।’

এ ব্যাপারে ফটিকছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জামাল ও সাধারণ সম্পাদক রায়হান রুপু বলেন, রেজা এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী এবং সে সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে আমাদের নেতা-কর্মীদের উপর হামলা করেছে। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে ফটিকছড়ি থানার ওসি বাবুল আকতার বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। মামলার প্রক্রিয়া চলছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।'

Bootstrap Image Preview