Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ৩০ সোমবার, মার্চ ২০২০ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

গাঁজা দিয়ে তৈরি যেসব প্রসাধনী!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারী ২০১৯, ০২:০০ PM
আপডেট: ২৮ জানুয়ারী ২০১৯, ০২:০০ PM

bdmorning Image Preview


ইন্টারনেটের কল্যাণে অনেক ট্রেন্ডই দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে! পাশ্চাত্যে তেমন এক ট্রেন্ড চলছে যা হলো সিবিডি অয়েল ট্রেন্ড। সিবিডি অয়েল হলো গাঁজা থেকে আহরিত এক ধরনের উপাদান। তা দিয়ে তৈরি তেল চায়ের সাথে মিশিয়ে পান করা হচ্ছে, ত্বকে মাখা হচ্ছে, এমনকি তা দিয়ে তৈরি চকলেটও খাওয়া হচ্ছে। এবার বাজারে এলো গাঁজা থেকে তৈরি প্রসাধনী।

সিবিডি, বা ক্যানাবিডিয়ল হলো গাঁজা থেকে আহরিত এমন এক উপাদান যা আমাদের মানসিক অবস্থার ওপর কোনো প্রভাব ফেলে না। অন্যদিকে গাঁজা খেয়ে মানুষ ঘোরের মাঝে চলে যায় যে উপাদানের কারণে, তার নাম হলো টিএইচসি বা টেট্রাহাইড্রোক্যানাবিনল। সিবিডি অয়েলের মাঝে টিএইচসি থাকে না। সিবিডিযুক্ত পণ্য পান করলে বা খেলে গাঁজার ঘোর আসবে না। এ কারণে রাসায়নিক হিসেবে সিবিডি আসলে পাশ্চাত্যের দেশগুলোতে বৈধ। গাঁজা থেকে ঘানির মাধ্যমে হেম্প অয়েলও অনেক সময়ে আহরণ করা হয় ও তা দিয়ে পণ্য তৈরি করা হয়।

সিবিডি অয়েল ও হেম্প অয়েলের পার্থক্য হলো, সিবিডির অনেক স্বাস্থ্য সুবিধা আছে যেমন, ঘুমাতে সাহায্য করা, অ্যাংজাইটি কমানো, ত্বকের প্রদাহ কমানো। অন্যদিকে হেম্প অয়েলে আছে কিছু পুষ্টি যেমন ওমেগা ফ্যাটি এসিড, লিনোলিক এসিড ও ভিটামিন ই।

হেম্প অয়েলের সাথে আমাদের ত্বকের প্রাকৃতিক তেলের অনেক মিল আছে। এ কারণে তা ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করা যায়। তা শুষ্ক ও ক্লান্ত ত্বকের জন্যও ভালো। এমনকি যাদের ত্বক স্পর্শকাতর তারা এটা ব্যবহার করতে পারেন।

বিভিন্ন বিউটি ব্র্যান্ড এ ধরনের পণ্য উৎপাদন শুরু করেছে ইতোমধ্যেই। সেফোরা ব্র্যান্ডের রয়েছে হেম্প সিড ফেসিয়াল অয়েল ও সিবিডি বডি লোশন। এগুলোতে টিএইচসি থাকে না বলে তা ব্যবহার নিরাপদ। এ ছাড়াও রয়েছে সিবিডি ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম, ফেস প্যাক, লিপ বাম ও মাসকারা।

Bootstrap Image Preview