Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ মঙ্গলবার, অক্টোবার ২০২০ | ৫ কার্তিক ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

গরুর শিংয়ের বিষয়ে সুইজারল্যান্ডে গণভোট

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:০১ PM
আপডেট: ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:০১ PM

bdmorning Image Preview


গরুর শিং থাকবে এটা স্বাভাবিক। কিন্তু সুইজারল্যান্ডের ক্ষেত্রে এই স্বাভাবিকতা প্রযোজ্য নয়। দেশটির বেশিরভাগ গরুর শিং নেই। বাচ্চা থাকাকালে এসব শিং বিশেষ পদ্ধতিতে পুড়িয়ে দেয়া হয়, যেন আর বড় হতে না পারে।

গরুর শিং থাকবে কি থাকবে না এটা নিয়ে সুইজারল্যান্ড দুইভাগে বিভক্ত। একদল মনে করে গরুর শিং থাকা উচিৎ নয়। এতে দুর্ঘটনার পরিমাণ বাড়তে পারে। এছাড়া শিংওয়ালা গরু রাখতেও জায়গা বেশি লাগে।

অন্য আরেকটি দল মনে করে শিং স্বাভাবিক একটি ব্যাপার। এটা পুড়িয়ে দেয়া অমানবিক। তাই গরুর শিং রাখতে হবে এবং এজন্য অতিরিক্ত জায়গা প্রয়োজন হওয়ায় যারা গরুর শিং রাখবে তাদের ভর্তুকি দিতে হবে। মূলত এ বিষয়টি নিয়েই রবিবার গণভোট অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সেখানে।

সুইজারল্যান্ডের কৃষক আর্মিন কাপল (৬৬) তার ব্যক্তিগত প্রচেষ্টায় এই গণভোটের আয়োজন করতে সক্ষম হচ্ছেন। দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার পর গণভোট আয়োজনের জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণ স্বাক্ষর সংগ্রহ করার পরই এটা সম্ভব হয়েছে।

গরুর শিং সম্পর্কে তিনি বলেন, গরু যেমন সেটার প্রতি আমাদের সম্মান দেখানো উচিৎ। তাদের শিং ফিরিয়ে দেয়া হোক। আপনি তাদের দিকে তাকালেই বুঝবেন তারা মাথা উঁচু করে রাখে এবং গর্ববোধ করে। কিন্তু শিং সরিয়ে দিলে তারা কষ্ট পায়।

কাপল আরও বলেন, শিং গরুর যোগাযোগে সহায়তা করে। পাশাপাশি দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে শিংয়ের ভূমিকা রয়েছে। যেহেতু শিং থাকলে একটি গরুর বেশি জায়গা প্রয়োজন হয়, সেজন্য শিংওয়ালা গরু যারা রাখবে তাদের ভর্তুকি দিতে হবে।

Bootstrap Image Preview