Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১০ সোমবার, আগষ্ট ২০২০ | ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

এএসপি পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগ, আটক ৩

ক্রাইম ডেস্কঃ
প্রকাশিত: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:৪৭ PM
আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:৪৭ PM

bdmorning Image Preview


কখনো ভুয়া এএসপি, কখনো সেনাবাহিনীর অফিসার, আবার কখনো বড় ইঞ্জিনিয়ার পরিচয়ে মোবাইলফোনের মাধ্যমে প্রতারণার ফাঁদ পেতে হাতিয়ে নিতেন মোটা অংকের টাকা। এমন ঘটনার প্রেক্ষিতে শনিবার ঢাকা ও জামালপুর থেকে আটক করা হয় ঐ প্রতারণা চক্রের মূলহোতা ওবায়দুর রহমান, তার স্ত্রী ও শ্যালককে।

আজ রবিবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকালে র‌্যাব-১৪ জামালপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন পুলিশের ভুয়া এএসপি পরিচয়দানকারী জামালপুর সদর উপজেলার রানাগাছা ইউনিয়নের রনরামপুর গ্রামের আব্দুল লতিফ আকন্দের ছেলে ওবায়দুর রহমান (৩৮), তার স্ত্রী রোমনা বেগম (২৭) ও শ্যালক সদর উপজেলার শরিফপুর ইউনিয়নের গোদাশিমলা গ্রামের শেখ সাদীর ছেলে নাজমুল হোসেন (২৫)।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জামালপুর র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহফুজুর রহমান জানান, প্রতারকচক্রের মূলহোতা ওবায়দুর রহমান নিজেকে কখনো ভুয়া এএসপি, কখনো সেনাবাহিনীর অফিসার, আবার কখনো বড় ইঞ্জিনিয়ার পরিচয়ে মোবাইলফোনের মাধ্যমে প্রতারণার ফাঁদ পেতে বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। সম্প্রতি এ ধরনের প্রতারণার শিকার হয়েছে জামালপুরের তিনজন অবিবাহিত নারী। তাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার প্রতারক চক্রের মূলহোতা ওবায়দুর রহমানকে ঢাকার তেজগাঁর তেজতুরিপাড়া থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার স্ত্রী ও শ্যালককে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান আরও জানান, গত এক বছরে প্রতারণার মাধ্যমে ভুক্তভোগী ঐ তিন নারীর কাছ থেকে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এই প্রতারক দল। গ্রেফতারের পর তাদের কাছ থেকে একটি চোরাই মোটরসাইকেল, তিনটি মোবাইলফোন ও ৫০টি সিম জব্দ করা হয়েছে। এ প্রতারণার সঙ্গে জড়িত আরও কয়েকজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

র‌্যাব জানিয়েছে, এ ঘটনায় জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Bootstrap Image Preview