Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০১ বৃহস্পতিবার, অক্টোবার ২০২০ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

যুক্তরাজ্যে নির্বাচন, টিউলিপ সিদ্দিকের পক্ষে তারেক কন্যা জাইমা!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:২৭ PM
আপডেট: ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:২৭ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


আজ যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচন। এবারের সাধারণ নির্বাচনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কমপক্ষে ১০ জন প্রার্থী লড়াইয়ে রয়েছেন। তাদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছেন লেবার পার্টির সংসদ সদস্য টিউলিপ সিদ্দিক।

উত্তর-পশ্চিম লন্ডনের হ্যামস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসনটি ধরে রাখার জন্য লড়ছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতি টিউলিপ সিদ্দিক।

অন্যদিকে বৃটেনে বসবাসরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একমাত্র মেয়ে জাইমা গত সপ্তাহে ব্যারিস্টারি পাশ করেছেন। জাইমার ব্রিটিশ আইনজীবী মহলে একটা পরিচিতি তৈরি হয়েছে এরিমধ্যে। বিশেষ করে বাংলাদেশি বংশোদ্ভুতদের কাছে তিনি বেশ জনপ্রিয় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নাতনী হিসেবে। তিনি টিউলিপ সিদ্দিকের বিরুদ্ধে কিছুদিন থেকে প্রচারণা চালাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ করেছিলেন লন্ডনের যুবলীগ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মমিন তফাদার।

কিন্তু এ অভিযোগ মিথ্যা বলেছেন বৃটেন প্রবাসী সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী। তিনি মঙ্গলবার বৃটেনে বাঙালিদের মুখপত্র দাবিকারী ‘ইউরোপিয়ান বার্তা’ পত্রিকাকে বলেন, ‘নির্বাচনেও টিউলিপকে হারানোর জন্য তারেক কোমর বেঁধে লেগেছেন। এ জন্য টিউলিপের বিরুদ্ধে জোর অপপ্রচার চলছে। এমন কোনো অপবাদ নেই, যা টিউলিপকে দেয়া হচ্ছে না। কিন্তু তার মেয়ে জাইমা সম্পর্কে যতোটুকু খবর নিয়েছি তাতে জেনেছি মেয়েটি খুবই গণতান্ত্রিক মনস্ক। কারণ তিনি বড়োই হচ্ছেন বৃটেনের মতো দেশে। পড়াশোনাও করেছেন। ফলে তিনি টিউলিপ সিদ্দিকের বিরুদ্ধে কোনো প্রচারণা চালাচ্ছেন না। তিনি মা ডা. জোবায়দা রহমানের দ্বারা বেশি প্রভাবিত। জেনেছি তিনি টিউলিপকে পছন্দই করেন।’

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ ২০১৫ সালে লেবার পার্টি থেকে নির্বাচনে জয়ী হন। পরের দফায় ২০১৭ সালের নির্বাচনে তিনি পুন:নির্বাচিত হন। এবারও তার জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ৩৭ বছর বয়সী টিউলিপ সিদ্দিককে পারিবারিক রাজনৈতিক পরিচয়ের কারণেই অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয়েছে। টিউলিপ প্রথমে ইংরেজি এবং পরে রাজনীতি, নীতি ও সরকার বিষয়ে লেখাপড়া করেছেন যুক্তরাজ্যের অন্যতম শীর্ষ দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি ২০০৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেট দলের বারাক ওবামার প্রচারাভিযানেও অংশ নেন।

Bootstrap Image Preview