Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৯ রবিবার, আগষ্ট ২০২০ | ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

সমর্থকদের কাছেও সু চি এখন মিথ্যাবাদী

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৩৭ PM
আপডেট: ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৩৭ PM

bdmorning Image Preview


রাখাইনে রোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার দায়ের করা মামলার শুনানি মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) থেকে শুরু হয়েছে।

শুনানিতে আজ বুধবার (১১ ডিসেম্বর) মিয়ানমারের পক্ষে বক্তব্য রাখবেন দেশটির রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি। গণহত্যার অভিযোগ ঢাকতে শান্তিতে নোবেলজয়ী এই নেত্রীর দেশের হয়ে আইনি লড়াইয়ে অংশ নেওয়ার বিষয়টিকে মোটেই ভালোভাবে নিচ্ছেন না প্রবাসী বার্মিজরা। এমনকি সু চির সমর্থকরাও তাকে মিথ্যাবাদী বলে অভিহিত করেছেন।

মঙ্গলবার হেগের পিস প্যালেসে যখন রোহিঙ্গা গণহত্যার বিচার চলছিল তখন আদালতের বাইরে সমাবেশ করেছেন প্রবাসী বার্মিজরা। তারাও মেনে নিতে পারছেন না এই গণহত্যার দায়। এই মামলায় মিয়ানমারের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বলে নোবেলজয়ী নেত্রী সু চির ওপর বেশ ক্ষুব্ধ তারা।

দ্য হেগে মামলার শুনানির সময় আদালতের বাইরে উপস্থিত ছিলেন সু চির সমর্থক মোয়ে মোয়ে ন্যান। একসময় সু চিকে নিজের আদর্শ ভাবলেও এখন তাকে মিথ্যাবাদী বলে মনে করেন তিনি। মোয়ে বলেন, রোহিঙ্গা নির্যাতনের ব্যাপারে প্রবাসী নাগরিকদের মিথ্যা তথ্য জানানো হয়েছে। আর তাতে সমর্থন দিয়েছেন সু চি।

আরেকজন প্রবাসী বার্মিজ নাগরিক বলেন, সামরিক স্বৈরশাসকরা রাখাইনে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর যে অত্যাচার চালিয়েছে তা সত্যিই মেনে নেওয়া যায় না। তারা মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে। আবার প্রবাসীদের ভুল তথ্য দিয়েছে।

২০১৭ সালের আগস্টে যখন রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মিয়ানমার সেনাবাহিনী কঠোর সশস্ত্র অভিযান শুরু করে, তখন সেই অভিযানকে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়ে বৈধতা দিয়েছিলেন সু চি। শুধু তাই নয়, সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসার ঘটনায় বিশ্ব মঞ্চে সমালোচনার মুখে পড়লেও সেনাবাহিনীর নৃশংস ধর্ষণ, গণধর্ষণ, হত্যা, জ্বালাও পোড়াওয়ের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের ব্যবস্থা নেননি শান্তিতে নোবেলজয়ী এই নেত্রী।

Bootstrap Image Preview