Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৮ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ২০২০ | ১৫ মাঘ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

শাপলাপুরের ইতিহাসে বিশাল গণসমুদ্রে মানুষের রায় কমলের আনারস প্রতীকে!

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৬:৫৯ PM
আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৮ PM

bdmorning Image Preview
নিজস্ব


কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী মাঠে হাজারো কণ্ঠে 'কমল ভাই,  কমল ভাই'  প্রতিধ্বনি হচ্ছে। বিশাল গণসমুদ্রে হাজার হাজার নারী পুরুষ রায় দিয়েছে সালাহউদ্দিন হেলালী কমলের আনারস প্রতীকের উপর। শাপলাপুরের মানুষ শপথ নিয়েছেন তাদের সর্বশক্তি দিয়ে হলেও ১২ তারিখ কমলকে আনারস প্রতীকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করে ঘরে ফিরবে।

আজ মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর শাপলাপুর হাই স্কুল মাঠে এক বিশাল জনসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জনসমাবেশ হাজার হাজার মানুষ  উৎসবমুখর পরিবেশে অংশগ্রহণ করে। 

নির্বাচনে ভোটের মাঠে এগিয়ে রয়েছেন মুক্তিযুদ্ধা মরহুম নুরুল আমিন হেলালীর সন্তান শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ক্লিন ইমেজের ঠগবগে যুবক সাংবাদিক সালাহ উদ্দিন হেলালী কমল।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র কমল শাপলাপুরের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আমিন হেলালীর জেষ্ঠ্যপুত্র। বিগত তত্বাবধায়ক সরকারের আমলে জননেত্রী শেখ হাসিনা কারাবন্দী হওয়ার পর ২০০৭ সালের ২০-২২ আগষ্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যে ছাত্র আন্দোলন হয়েছিল, তার অন্যতম সংগঠক ছিলেন তিনি। ছাত্র জীবন শেষে যুক্ত হন সাংবাদিকতায়।

জানা গেছে, আসন্ন ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে বেশ কিছুদিন ধরে ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে মানুষের ঘরে ঘরে যাচ্ছেন কমল। এতে অভূতপূর্ব সাড়াও পাচ্ছেন তিনি। বয়স্ক ভোটারদের অনেকেই তার পিতা নূরুল আমিন হেলালীর স্মৃতিচারণ করে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়ছেন। অন্যদিকে তরুনরা উজ্জীবিত তারুণ্যের শক্তিতে।

সাংবাদিকতার বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ার ছেড়ে প্রত্যন্ত একটি ইউনিয়নের নির্বাচনে কেন অংশ নিতে চান জানতে চাইলে সালাহ উদ্দিন হেলালী কমল বলেন, 'একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে যে দেশপ্রেম ও চেতনা ভেতরে কাজ করতে, সেটিই আমাকে এই নির্বাচনে টেনে এনেছে।আমি শাপলাপুরের সন্তান। এই শাপলাপুরের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে আমার মরহুম পিতার অনেক স্বপ্ন ছিল। আমি তার স্বপ্ন যেমন বাস্তবায়ন করতে চাই, তেমনি মহেশখালীকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার যে উন্নয়ন মহাযজ্ঞ শাপলাপুরবাসীকে তার সারথী করতে চাই। এসব চিন্তা থেকেই এবারের নির্বাচনে অংশ গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি প্রতি দরজায় কড়া নাড়ছি, সবার সুখ-দুঃখের কথা শুনছি। শাপলাপুরের মানুষের ভালোবাসায় আমি অভিভূত।'

শাপলাপুরকে একটি উন্নত সমৃদ্ধ ইউনিয়ন হিসেবে পরিচিত করতে নানামুখি উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন এ তরুণ প্রার্থী। নির্বাচিত হলে সেইসব উদ্যোগ নিবেন বলে জানান কমল।

তিনি বলেন, 'টেকসই যোগাযোগ ব্যবস্থা নির্মাণ, ভূমির সর্বোত্তম ব্যবহার, নিত্য নতুন উৎপাদন প্রণালী আবিস্কার, মহিলাদের জন্য কুটিরশিল্প, যুবকদের জন্য কারিগরি বিদ্যালয়, ভোকেশনাল ট্রেনিং, তরুনদের জন্য পাঠাগার-সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, শিশুদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশের জন্য সৃজনশীল কর্মসূচি, স্থানীয় জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় নিয়মিত ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পসহ ইউনিয়নটিকে ডিজিটাল ইউনিয়নে রুপান্তরসহ শতভাগ সাক্ষরতা নিশ্চিত করতে চাই আমি।'

শাপলাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আমিন হেলালী ছিলেন দলের ত্যাগী সংগঠক। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করার জন্য পাকিস্তান সরকার তার বিরুদ্ধে সিআর মামলা নং ৮৯/৭১ দায়ের করেন। পরবর্তীতে চেয়ারম্যান হিসেবে দারুণ জনপ্রিয়তা লাভ করেন। তারই পুত্র ব্যক্তিজীবনে সৎ ও সাহসী সাংবাদিক হিসেবে পরিচিত সালাহ উদ্দিন হেলালী কমল কাজ করেছেন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি ও আল জাজিরাতে।

Bootstrap Image Preview