Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৬ রবিবার, জানুয়ারী ২০২০ | ১৩ মাঘ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

১০ বছরের রেকর্ড ভাঙল সবজির বাজার

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:৩২ PM
আপডেট: ২৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:৩২ PM

bdmorning Image Preview


দেশের অন্যতম বড় সবজির হাট যশোরের সাতমাইল-বারিনগর। বছরে এ হাটে সবজি বিক্রি হয় অন্তত ৫০০ কোটি টাকার। এ বছর হাটটিতে পাইকাররা সবজির যে দাম দিচ্ছেন, তা ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বলে জানিয়েছেন কৃষকরা।

যশোর জেলায় এবার ২০ হাজার হেক্টর জমিতে সবজি আবাদের লক্ষ্য নির্ধারণ হয়। এর মধ্যে এবারো সবচেয়ে বেশি সবজি আবাদ হয়েছে সদর উপজেলার চূড়ামনকাটি, হৈবতপুর ও কাশিমপুর ইউনিয়নে। হৈবতপুরে ১ হাজার ৬৩০, চূড়ামনকাটিতে ৮২৮ হেক্টর ও কাশিমপুরে ৫৫৩ হেক্টর জমিতে এবার শীতকালীন সবজির আবাদ হয়েছে।

এছাড়াও যশোর শহরের বড় বাজার ঘুরে দেখা গেছে সবজির চড়া দাম। শংকর কুমার নামে এক আড়তদার বলেন, এ বাজারে ফুলকপি প্রতি কেজি খুচরা বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়। এছাড়া কাঁচামরিচ ৩০ টাকা, মুলা ৫০, বেগুন ৬০, পটোল ৫৫, শিম ৬০ ও উচ্ছে ৮০ টাকা কেজি দরে খুচরা বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া বাঁধাকপি প্রতি পিস ৩৫ টাকা, মানকচু ৪৫ ও মেটে আলু ১০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। আর লাউ প্রতি পিস বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা দরে।

যশোর শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে দেখা গেছে, ক্ষেত থেকে সবজি তুলে বিক্রির জন্য নিয়ে আসছেন বারিনগর, চূড়ামনকাটি, হৈবতপুর, আব্দুলপুরসহ আশপাশ এলাকার কৃষকরা। তারা জানান, বর্তমানে প্রতিদিন এ সবজি হাট বসছে। পাইকাররা তাদের সবজির দামও দিচ্ছেন আশানুরূপ।

এছাড়াও এবার চূড়ামনকাটি, হৈবতপুর ও কাশিমপুর ইউনিয়নে। হৈবতপুরে ১ হাজার ৬৩০, চূড়ামনকাটিতে ৮২৮ হেক্টর ও কাশিমপুরে ৫৫৩ হেক্টর জমিতে এবার শীতকালীন সবজির আবাদ হয়েছে।

খাইরুল ইসলাম নামে আরেক সবজি ব্যবসায়ী বলেন, বর্তমানে এ হাটে সবজির মধ্যে মুলা প্রতি কেজি ৩০ টাকা, বেগুন ৩২, পটোল ৩২, শিম ৩৪-৩৫, উচ্ছে ৫০, ফুলকপি ৫৫-৬০ ও মেটে আলু ৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া বাঁধাকপি প্রতিটি ২০-২২ টাকা, মানকচু ২০-২৫ ও লাউ প্রতিটি বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর যশোরের উপপরিচালক এমদাদ হোসেন বলেন, যশোরে সারা বছরই সবজির আবাদ হয়। এখন জেলায় পুরোদমে চলছে শীতকালীন সবজি বেচাকেনা।

Bootstrap Image Preview