Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১১ বুধবার, ডিসেম্বার ২০১৯ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

জন্মেছেন যখন মৃত্যুবরণ করবেনই, স্বাভাবিক হতে পারে অ্যাক্সিডেন্টেও হতে পারেঃ রেলমন্ত্রী

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:৪৩ PM
আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:৪৩ PM

bdmorning Image Preview


রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘আমরা নিজেরা তো খুব সতর্ক থাকি, আমাদেরও তো অসুখ হচ্ছে। এটা কীভাবে বলবেন, আপনি যখন জন্মেছেন মৃত্যুবরণ করবেনই। স্বাভাবিক হতে পারে, অ্যাক্সিডেন্টে হতে পারে। কিন্তু মৃত্যু নির্ঘাত।’

বুধবার (২০ নভেম্বর) রাজধানীর রেল ভবনে মন্দবাগ ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ ও ব্রিফিংয়ে এক প্রশ্নের জাবাবে তিনি এ কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন রেলওয়ে সচিব মো. মোফাজ্জল হোসেন, রেলের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) মিয়া জাহান প্রমুখ।

গত ১১ নভেম্বর দিবাগত রাত ৩টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনের লুপলাইনের মুখে সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন এবং চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেসের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় হতাহতের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আগে জানিয়েছিলাম, এ ঘটনায় ১৬ জন নিহত হয়েছেন। কিন্তু একজনের নাম দুবার আসে। আসলে তখন নিহত হয়েছিলেন ১৫ জন। এরপর আরও দুজন মারা যান। ফলে ওই দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ায় ১৭ জনে। আহত হন প্রায় ৩৭ জন। এ ঘটনায় রেলের প্রায় ৩০ লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে রেলপথ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনে ভয়াবহ দুর্ঘটনার জন্য আন্তঃনগর ৭৪১ নম্বর তূর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেস ট্রেনের লোকোমাস্টার (চালক), সহকারী লোকোমাস্টার ও গার্ড দায়ী বলে জানান মন্ত্রী। বলেন, ‘ট্রেন দুর্ঘটনায় মোট পাঁচটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। এর মধ্যে তিনটি কমিটির প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। এসব প্রতিবেদন অনুযায়ী, আন্তঃনগর ৭৪১ নম্বর তূর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেস ট্রেনের লোকোমাস্টার, সহকারী লোকোমাস্টার ও গার্ড সিগন্যালগুলো যথাযথভাবে পর্যবেক্ষণ না করে ট্রেন পরিচালনা করেন। এ কারণে দুর্ঘটনা ঘটে।’

দায়ী তিনজন হলেন- তূর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেস ট্রেনের লোকোমাস্টার তাছের উদ্দিন, সহকারী লোকোমাস্টার অপু দে ও গার্ড মো. আব্দুর রহমান।

দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে রেলমন্ত্রী আরও বলেন, ‘অ্যাক্সিডেন্ট কোন জায়গায় নেই, বিমানে নেই? সমুদ্রে নেই? রাস্তায় নেই, ট্রেনে নেই, কোন ব্যবস্থায় আপনি নিরাপদ থাকবেন? অ্যাক্সিডেন্ট সব জায়গায় রয়েছে। তবে হারটা কম আর বেশি। আমাদের দেশে যত বেশি গতি বাড়বে তত রিক্স বাড়বে।’

Bootstrap Image Preview