Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১১ বুধবার, ডিসেম্বার ২০১৯ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

পরিবেশ বিপর্যয়ে ১০ হাজার অতিথি পাখির মৃত্যু

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:১৬ PM
আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:১৬ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


ভয়াবহ পরিবেশ বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে গোটা ভারত। পশ্চিম ভারতের রাজস্থানে বিষাক্ত পানির প্রভাবে গত ৭ দিনে প্রায় ১০ হাজারের মত অতিথি পাখির মৃত্যু হয়েছে। অপরদিকে, রাজধানী দিল্লীর বায়ুদূষণ যেন কমছেই না। মাত্রাতিরিক্ত দূষণের মধ্যে প্রয়োজনের তাগিদে মাস্ক পড়েই বের হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। যার ফলে দেখা দিচ্ছে নানা রোগের উপসর্গ।    

রোববার (১৭ নভেম্বর) মৃত পাখিগুলোর দেহে বিষাক্ত পদার্থ পাওয়া গেছে বলে জানায় রাজ্যটির সাম্ভার লেক বনাঞ্চল কর্তৃপক্ষ। তারা জানায়, পাখিগুলো ‘এভিয়ান বোটুলিজম’ এর শিকার। অর্থাৎ ঐ অঞ্চলের পানিতে খুবই বিষাক্ত কিছু ছিল আর তাই সেই পানি খাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে মারা যাচ্ছে এসব অতিথি পাখিগুলো। দুর্গন্ধ ও জীবাণু ছড়িয়ে পড়ার আগেই মৃত পাখিগুলোকে মাটিতে পুঁতে ফেলার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।  

অপরদিকে, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার অনুসন্ধানের মাধ্যমে জানা যায়, ২০১৬ সালে ভারতে শুধুমাত্র মারাত্মক বায়ু দূষণের কারণে নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫ লাখ মানুষ।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় যে, ফসলের উচ্ছিষ্ট অংশ পুড়ানো ও ইটের ভাটার ধোঁয়ার কারণেই মৃত্যুর হার আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। এছাড়াও, কয়লাভিত্তিক জ্বালানি প্রকল্পের জন্যও দূষণ অনেকটা দায়ী বলে ধরা হচ্ছে।  

দিল্লিতে বায়ু দূষণের মাত্রা যখন চরমে, তখন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গুজরাট ও হরিয়ানায় চলছে খড় পোড়ানো। আর, এভাবে চলতে থাকলে দুষণের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে আনা কঠিন হবে বলে মনে করছেন পরিবেশবিদরা।

ওদিকে, প্রতিদিনই কয়েকশ পাখির করুণ মৃত্যুতে উদ্বিগ্ন বনাঞ্চল কর্তৃপক্ষ। আপাতত, এদের মৃত্যু দেখা ছাড়াও কর্তৃপক্ষের কিছুই করার নেই। সবমিলিয়ে এক ভয়ঙ্কর বিপর্যয়ের মধ্যে যাচ্ছে ভারতের পরিবেশ এবং আবহাওয়া।   

Bootstrap Image Preview