Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৩ শুক্রবার, ডিসেম্বার ২০১৯ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

ভারত এবং পাকিস্তানের ফেলা আবর্জনা ভেসে আসছে লস এঞ্জেলেসেঃ ট্রাম্প

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ১০:৫০ PM
আপডেট: ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ১০:৫০ PM

bdmorning Image Preview


রাশিয়াকে দোষারোপ করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, তারা শিল্পকারখানার বর্জ্য, ধোঁয়া এবং অন্যান্য অবর্জনা পরিস্কারে কোনো ব্যবস্থাই নিচ্ছে না। এসময় জলবায়ু পরিবর্তনকে একটি জটিল সমস্যা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্বাস করুন আর নাই করুন, আমি নিজেকে একজন পরিবেশবাদী বলেই মনে করি।

মঙ্গলবার নিউইয়র্কের ইকোনমিক ক্লাবে দেয়া এক বক্তব্যে ট্রাম্প আরো বলেন, জলবায়ু নিয়ে আমাকে কথা বলতেই হবে, কারণ আমি এই গ্রহে বিশুদ্ধ বাতাস এবং পানি চাই। এনডিটিভি, হেরাল্ড পাবলিসিস্ট

প্যারিস জলবায়ু চুক্তিকে তার দেশের জন্য এক বিপর্যয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এর মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ট্রিলিয়ন ট্রিলিয়ন ডলার ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। অথচ চীন ২০৩০ সাল পর্যন্ত এর তোয়াক্কা করবে না, রাশিয়া ফিরে গেছে সেই অবর্জনাময় নব্বইয়ের দশকে। ভারতকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমরা অর্থ সাহায্য দেই কিন্তু আমরাওতো উন্নয়নশীল দেশ। তার এই কথায় দর্শকদের মধ্যে হাসির রোল উঠে। প্যারিস জলবায়ু চুক্তিকে একপেশে এবং যুক্তরাষ্ট্রই একতরফাভাবে ক্ষতির শিকার হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, এটা ভয়াবহ এবং অর্থনৈতিক দিক থেকেও অন্যায্য।

জরবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি এবং বাণিজ্যনীতি নিয়ে তিনি কি ভাবছেন এমন এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, এধরনের প্রশ্নে সাধারণত আমি বলে থাকি যে আমার একটু সমস্যা আছে।

আয়তনের দিক থেকে রাশিয়া, চীন, এবং ভারতের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্র একটি ছোট দেশ দাবি করে তিনি আরো বলেন, অন্যান্য দেশের মতো তারাও সমুদ্রকে আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত করছে কিন্তু পরিচ্ছন্ন করার কোনো চেষ্টাই করছে না। লস এঞ্জেলেসের নিজস্ব সমস্যা রয়েছে, তার সঙ্গে নতুন করে যুক্ত বাড়তি আবর্জনা সমুদ্রের পরিবেশকে বিষাক্ত করে তুলছে। এসব নিয়ে কেউ কথা বলে না কিন্তু সবাই ঠিকই আমাদের দেশ নিয়ে কথা বলে।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ২০১৫ সালের ১৮৮ দেশের সমন্বয়ে ঐতিহাসিক জলবায়ু চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসার অনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে। গ্রীণহাউস গ্যাস নি:সরণ হ্রাস করার লক্ষে প্যারিসে অনুষ্ঠিত জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলন ‘কোপ ২১’এ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন ট্রাম্পের পূর্বসূরি বারাক ওবামা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ট্রাম্প ২০১৭ সালের ১ জুন এই চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসার ঘোষণা দেন এবং সে বছরের ৪ নভেম্বর থেকে এর প্রক্রিয়া শুরু হয়। ২০২০ সালের ৪ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্র এই চুক্তি থেকে পুরোপুরি বেরিয়ে আসবে যুক্তরাষ্ট্র।

Bootstrap Image Preview