Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ রবিবার, ডিসেম্বার ২০১৯ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

পেশাগত আচরণ ভঙ্গ: ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজকে অপসারণ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:১৪ PM
আপডেট: ১১ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:১৪ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


মানবতাবিরোধী অপরাধীর সঙ্গে গোপন আঁতাতের অভিযোগে শৃঙ্খলা ও পেশাগত আচরণ ভঙ্গ এবং গুরুতর অসদাচরণের দায়ে ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছে। সোমবার (১১ নভেম্বর) আইন মন্ত্রণালয়ের উপ সলিসিটর এসএম নাহিদা নাজমীন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজকে শৃঙ্খলা ও পেশাগত আচরণ ভঙ্গ এবং গুরুতর অসদাচরণের দায়ে ২০১৩ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি প্রজ্ঞাপনে প্রদত্ত নিয়োগ বাতিলক্রমে প্রসিকিউটর পদ হতে অপসারণ করা হলো।’

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামি ন্যাশনাল সিকিউরিটি ইন্টেলিজেন্স (এনএসআই) এবং পাসপোর্ট অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক (ডিজি) মুহাম্মদ ওয়াহিদুল হককে ২০১৮ সালের ২৪ এপ্রিল গ্রেফতার করা হয়। ট্রাইব্যুনাল সূত্রমতে, গত বছরের ১১ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে করা মামলা পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হয় তুরিন আফরোজকে। এরপর তিনি মুঠোফোনে ওয়াহিদুল হকের সাথে কথা বলেন এবং তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানার ব্যাপারে সতর্ক করেন। পরবর্তীতে তারা গুলশানে অলিভ গার্ডেন নামের একটি রেস্তোরাঁয় সাক্ষাৎ করেন এবং সেখানে প্রসিকিউটর তুরিন ওয়াহিদুল হকের কাছে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করেন।

বিষয়টি ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার নজরে আসলে প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজকে প্রাথমিকভাবে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলা এবং পরবর্তীতে তার হাতে থাকা অন্যান্য মামলা থেকে অব্যাহতি দেন ট্রাইব্যুনালের চিফ প্রসিকিউটর। পাশাপাশি এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেন ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা।

অভিযোগের পরপরই ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার পক্ষ থেকে ওয়াহিদুল হক এবং তুরিন আফরোজের কল রেকর্ড ও বৈঠকের অডিওরেকর্ডসহ যাবতীয় তথ্য-প্রমাণ আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।

Bootstrap Image Preview