Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ শুক্রবার, নভেম্বার ২০১৯ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

ভোলার ঘটনায় যেসব দাবি জানিয়েছে হেফাজত

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৩৮ PM
আপডেট: ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৩৮ PM

bdmorning Image Preview
প্রতীকী ছবি


ভোলার বোরহানউদ্দিনে সাধারণ মুসল্লিদের ওপর পুলিশের গুলি বর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। 

আজ মঙ্গলবার জোহরের নামাজ শেষে রাজধানীর বাইতুল মোকাররম জামে মসজিদের উত্তর গেটে বিক্ষোভ মিছিল করেন দলটির নেতাকর্মীরা।

বিক্ষোভ মিছিল থেকে বোরহানউদ্দিনের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে ৫টি দাবি উত্থাপন করেন তারা। একই সঙ্গে পরবর্তী কর্মসূচিও ঘোষণা করা হয়।

হেফাজতে ইসালামের দাবিসমূহ

১. ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও আল্লাহকে নিয়ে কটূক্তিকারী হিন্দু ধর্মাবলম্বী বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

২. পুলিশের গুলিতে নিহত শহীদদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

৩. পুলিশের গুলিতে আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।

৪. নির্বিচারে গুলি বর্ষণকারী অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে।

৫. গ্রেপ্তার তৌহিদী জনতার সদস্যদের নিঃশর্ত মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।

এর আগে গতকাল সোমবার বাইতুল মোকাররমের উত্তর গেটে বোরহানউদ্দিনের ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। তারাও বিক্ষোভ মিছিল শেষে এ ঘটনায় বিভিন্ন দাবি উত্থাপন করেন।

প্রসঙ্গত, ধর্ম অবমাননার অভিযোগে গত রোববার ভোলার বোরহানউদ্দিনে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক যুবকের বিচারের দাবিতে ‘তৌহিদী জনতা’র ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল হয়। মিছিলে অস্বাভাবিকতা তৈরি হলে তা সামাল দিতে পুলিশ মুসল্লিদের ওপর গুলিবর্ষণ করে।

পুলিশ বলছে, এক যুবকের হ্যাক হওয়া আইডি থেকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার বক্তব্য ছড়ানোর ঘটনা থেকে এ পরিস্থিতির সূত্রপাত হয়। 

বোরহানউদ্দিনের ঘটনায় পুলিশের গুলিতে চারজন নিহত হন। নিহত চারজনকে নিজেদের কর্মী-সমর্থক বলে দাবি করেছে তৌহিদী জনতা। সংঘর্ষে পুলিশের ১০ সদস্যসহ দেড় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে।

 

Bootstrap Image Preview