Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শুক্রবার, নভেম্বার ২০১৯ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

পাকিস্তানকে দুই টুকরো করেছিল কংগ্রেস, মোদির এটি জানা উচিত: কপিল সিব্বাল

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর ২০১৯, ১২:৩৪ PM
আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০১৯, ১২:৩৪ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের সিনিয়র নেতা কপিল সিব্বাল বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের জানা উচিত- পাকিস্তানকে দুই টুকরো করেছিল কংগ্রেস। 

তিনি আরও বলেন, ৩৭০ ধারা ইস্যুকে বিজেপি রাজনৈতিক সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করছে। মোদিকে মানুষের সামনে এটিও বলা উচিত, ১৯৭১ সালে কংগ্রেসই পাকিস্তানকে দুই টুকরো করেছিল। শনিবার তিনি এক সংবাদ সম্মেলনে ওই মন্তব্য করেন।

কপিল সিব্বাল বলেন, ‘নির্বাচন আসার সঙ্গে সঙ্গে নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহ আসল বিষয়গুলো ভুলে যান এবং কখনও তারা এনআরসি সম্পর্কে কথা বলেন, কখনও তারা ৩৭০ ধারা নিয়ে কথা বলেন। আসলে ৩৭০ ধারার কথায় জনগণের পেট ভরবে না, মানুষ কর্মসংস্থান পাবে না।’

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী হরিয়ানা ও মহারাষ্ট্র বিধানসভা নির্বাচনে ৩৭০ ধারা সম্পর্কে কথা বলেছেন। ৩৭০ ধারা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়।

কিন্ত জনগণকে তাদের এটিও বলা উচিত, কংগ্রেস সরকারের সময়ে পাকিস্তান দুই টুকরো হয়েছিল। কিন্তু আমি জানি, তিনি এটি বলবেন না। কারণ এটি বলার মতো সৎসাহস তার নেই।’

দেশে অর্থনীতির অবস্থার কথা উল্লেখ করে কপিল সিব্বাল বলেন, আইএমএফ, বিশ্বব্যাংক এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠান বলছে যে, ভারতে অর্থনৈতিক মন্দা রয়েছে; কিন্তু সরকার তা মানতে রাজি নয়।

তিনি আরও বলেন, মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানায় বেকারত্ব বেড়েছে এবং কৃষকদের অবস্থা আগের চেয়ে আরও খারাপ হয়ে উঠেছে। যদিও বিজেপি এসব বিষয় এড়িয়ে যাচ্ছে।

মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানায় ২১ অক্টোবর বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ফল ঘোষণা হবে ২৪ অক্টোবর। বিজেপি জাতীয়তাবাদের হাওয়া তুলে কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল, এনআরসি, অনুপ্রবেশ, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, সন্ত্রাসবাদ ইত্যাদি ইস্যুতে ভোট বৈতরণী পার হওয়ার চেষ্টা করছে।

অন্যদিকে প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস ও অন্যরা বেকারত্ব, অর্থনৈতিক দুর্দশা, কৃষকদের সমস্যাসহ বিভিন্ন ইস্যুতে সরকারের ব্যর্থতার চিত্র তুলে ধরে সফল হওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে।

Bootstrap Image Preview