Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শুক্রবার, নভেম্বার ২০১৯ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

পুলিশের এক ধমকেই ‘কাবু’ বিএনপি, সমাবেশ শেষ করল দুই মিনিটে!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:৩১ PM
আপডেট: ১২ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:৩১ PM

bdmorning Image Preview


বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যা ও ভারতের সঙ্গে চুক্তির প্রতিবাদে ডাকা কেন্দ্রীয় কর্মসূচি পালন থেকে পিছিয়ে গেল নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি। কর্মসূচি পালনের জন্য বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের নিয়ে ঘটনাস্থলে এলেও পুলিশের ভয়ে তারা কর্মসূচি পালন করতে পারেনি।

শনিবার বিকেলে শহরের চাষাঢ়ায় কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে পুলিশের বাধার মুখে পড়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা।

জানা গেছে, ভারতের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকারের চুক্তিকে দেশের ‘স্বার্থবিরোধী’ উল্লেখ করে তা বাতিলের দাবিতে এবং বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে দুদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় বিএনপি। কর্মসূচি অনুযায়ী শনিবার ঢাকাসহ দেশের সব মহানগর এবং রোববার দেশের সব জেলা সদরে জনসমাবেশ করার কথা।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রোববার নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি ও তাদের সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের গলিতে সমবেত হয়েছিলেন। জনসমাবেশের জন্য নেতাকর্মীরা ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়েও ছিলেন। উপস্থিতিও ছিল উল্লেখযোগ্য। এরই মধ্যে ঘটনাস্থলে হাজির হয় নারায়ণগঞ্জ সদর থানা পুলিশের একটি টিম। পুলিশ এসেই বিএনপির নেতাদের ধমকি দিয়ে বলে, দুই মিনিটের মধ্যেই কর্মসূচি শেষ করতে হবে। পরে পুলিশের কথামতোই তারা কর্মসূচির সমাপ্তি করে যে যার মতো করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। নেতাকর্মীদের বিশাল উপস্থিতি সত্ত্বেও কর্মসূচি পালনের নামে ফটোসেশন করে চলে যান তারা।

জনসমাবেশে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন, ফখরুল ইসলাম মজনু, সাধারণ সম্পাদক এ টি এম কামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম সজল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আবুল কাউসার আশা ও মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি সাহেদ আহমেদসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ টি এম কামাল বলেন, আমরা এখানে দেশের মানুষের পক্ষে কথা বলার জন্য এসেছিলাম। কিন্তু আমাদের কর্মসূচি পালন করতে দেয়া হয়নি। তারপরও আমি এখানে অবস্থান নিয়েছি। আমি ভয় পাই না, জীবনে বহুবার কারাবরণ করেছি। কিন্তু যারা পদে আছেন, ভবিষ্যতে নির্বাচন করবেন, তারা সরে গেছেন। ভয় পাইলে রাজনীতি করার দরকার নেই। এখন আর ভয়ের দিন নেই। আমাদের জনগণের পক্ষে কথা বলতে হবে।

তবে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন জানান, আমরা কাউকে বাধা দেইনি, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি পালন করতে বলেছি। কর্মসূচি থেকে তাদের কর্মীরাই চলে গেছে, যারা ছিল তারা কর্মসূচি পালন করেছে।

Bootstrap Image Preview