Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

যাদের নিয়ন্ত্রণে চলত মতিঝিলের ক্লাবপাড়া!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:৫৭ AM
আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:৫৭ AM

bdmorning Image Preview


রাজধানী মতিঝিলের ক্লাব পাড়ায় অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। অভিযানে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, দিলকুশা ও আরামাবাগ ক্লাব থেকে আনুমানিক ৩০টি ডিজিটাল ক্যাসিনো বোর্ড, মাদক ও নগদ টাকা উদ্ধার করেছে।

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বেলা ৩টার দিকে এ অভিযান চালায় পুলিশের মতিঝিল বিভাগ।বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বিষয়টি নিশ্চিত করেন মতিঝিল জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিশু বিশ্বাস।

মিশু বিশ্বাস বলেন, 'প্রায় ৩/৪ ঘণ্টার অভিযানে ক্লাবগুলো থেকে বিপুল পরিমাণ ক্যাসিনো বোর্ড, জুয়ার বোর্ড, মাদকদ্রব্য, উদ্ধার করা হয়। তবে অভিযানে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। আগেই তারা স্পট থেকে সরে পড়েছেন।'

রাজধানীজুড়ে যখন ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযান চলছে। ক্যাসিনো পরিচালনাকারীদের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যবস্থা নিচ্ছে। তখন প্রশ্ন উঠছে, থানার ৩০০ গজের ভেতরে এই ক্লাবগুলো নিয়ন্ত্রণ করতো কারা?

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দুই শিফটে পরিচালিত হওয়া এই ক্লাবগুলো রাজনৈতিক ব্যক্তিদের দ্বারাই নিয়ন্ত্রিত হত।

জানা যায়, ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাব নিয়ন্ত্রণ করে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. আবু কাউছার। আরামবাগ স্পোর্টিং ক্লাব নিয়ন্ত্রণ করে ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোমিনুল হক সাঈদ। মোহামেডান স্পোটিং ক্লাব ও দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাবও নিয়ন্ত্রিত করেন এই কাউন্সিলর। আর ভিক্টোরিয়া ক্লাবটি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট দ্বারা নিয়ন্ত্রণ হত।

এদিকে অভিযান শেষে মতিঝিল বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার শিবলী নোমান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'অভিযান শেষ হয়েছে। তবে এই ক্লাবগুলো কারা কারা নিয়ন্ত্রণ করত আমরা খোঁজ নিচ্ছি। নিশ্চিত হতে পারলেই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।'

Bootstrap Image Preview