Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৪ সোমবার, অক্টোবার ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

আইনের ছাত্রীকে ধর্ষণ, সাবেক মন্ত্রী গ্রেফতার

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৫২ PM
আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৫২ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


আইনের ছাত্রীকে হুমকি দিয়ে এক বছর ধরে লাগাতার ধর্ষণ করেছিলেন সাবেক এক মন্ত্রী। এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে নানা টানাপোড়েনের পর অবশেষে গ্রেপ্তার হয়েছেন ভারতের সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্বামী চিন্ময়ানন্দ।  

শুক্রবার সকালে উত্তর প্রদেশের শাহজাহানপুর শহর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছে ভারতের স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম (সিট)। 

এর বেশ কিছুদিন আগে শাহজাহানপুরে সাংবাদিক সম্মেলনে ওই তরুণী অভিযোগ করেন, স্বামী চিন্ময়ানন্দ টানা এক বছর ধরে হুমকি দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন।

উত্তরপ্রদেশের ওই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তোলার পর থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়ে যান আইনের স্নাতকোত্তর ছাত্রী। মেয়ে নিখোঁজ হওয়ার পর পুলিশের কাছে বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন নিগৃহীতার বাবা। এরপর কেটে যায় বেশ কয়েকদিন।

গত সপ্তাহে সাংবাদিক সম্মেলনে পুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করেন ওই আইনের ছাত্রী। তার দাবি, প্রথমে অভিযোগ নিতে গড়িমসি করে পুলিশ। পরে অভিযোগ নেওয়ার পরেও বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দকে গ্রেপ্তার করেনি।

পরে এই মামলায় গঠিত স্পেশ্যাল ইনভেস্টিগেশন টিম গত সোমবার ধর্ষিতাকে শাহজাহানপুরের আদালতে পেশ করে। একজন ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে তার বয়ান নথিভুক্ত করা হয়। এসময় ওই তরুণী সিটের হাতে ৪৩টি ভিডিও ক্লিপিংসও তুলে দেন।

এই টানাপোড়েনের মাঝে গত মে মাসে ওই কলেজে শিক্ষিকা হিসেবে যোগ দেন ধর্ষিতার মা। বৃহস্পতিবারই চিন্ময়ানন্দের কলেজ মুমুক্ষু আশ্রমের অভিযোগকারিণীর মায়ের নিয়োগ সম্পর্কে বিস্তারিত রেকর্ড চেয়েছে সিট।

এরপরই শুক্রবার শাহজাহানপুর থেকে স্বামী চিন্ময়ানন্দকে গ্রেপ্তার করা হয়। চিন্ময়ানন্দের পরিচালিত ওই একই কলেজের ছাত্রী ছিলেন ওই তরুণী।

আগামী সোমবারের মধ্যে এলাহাবাদ হাইকোর্টে এই মামলার তদন্ত রিপোর্ট পেশ করতে পারে সিট।

এদিকে মামলার তদন্তকারী এক কর্মকর্তা জানান, ওই তরুণীর শারীরিক অবস্থা ভালো নয়। তিনি বর্তমানে নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাই তিনি কারো সঙ্গে দেখা করতে পারছেন না।

Bootstrap Image Preview