Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ রবিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৯ | ৩১ ভাদ্র ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

উন্নয়ন নয়, দেশকে পিছিয়ে রাখাই ছিল বিএনপি-জামায়াতের চরিত্র: প্রধানমন্ত্রী

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:২৮ PM
আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:২৮ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


উন্নয়ন নয় দেশকে পিছিয়ে রাখাই ছিল বিএনপি-জামায়াতের চরিত্র বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

বুধবার সকালে (১১ সেপ্টেম্বর) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে ৪টি বিদ্যুৎকেন্দ্র, ৮টি উপকেন্দ্র এবং ১০ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন করে এ কথা বলেন তিনি।

এর আগে গণভবনে পুলিশ কমিউনিটি ট্রাস্টের অনুমোদন পাওয়া নতুন ব্যাংক 'কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ' এর বাণিজ্যিক কার্যক্রম উদ্বোধন করেন সরকারপ্রধান। দেশের ৫৯তম ব্যাংক হিসেবে যাত্রা শুরু করা নতুন এ প্রতিষ্ঠানটি থেকে পুলিশ সদস্যদের পাশাপাশি সেবা পাবেন সাধারণ নাগরিকরাও।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী জঙ্গিবাদ দমনে পুলিশের ভূমিকার জন্য এ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান।

তিনি বলেন, পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানাবো তারা এদেশে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ দমনে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে। সাথে সাথে গোয়েন্দা বাহিনীর অন্যান্য সংস্থাও বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছে।

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ এটা শুধু বাংলাদেশে নয় সারা বিশ্বব্যাপী এটা একটা বিরাট সমস্যা। তবে এতটুকু বলতে চাই, আমাদের দেশে পরপর যে ঘটনা ঘটেছে, যেমন রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজানের ঘটনা, কিশোরগঞ্জে ঈদের দিনে শোলাকিয়ার ঘটনায় সবার আগেই ছুটে গিয়েছে পুলিশবাহিনীর সদস্যরা। তারা জীবনও দিয়েছেন, আত্মহুতি দিয়েছেন বলেও যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

পরে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৪টি বিদ্যুৎকেন্দ্র, ৮টি উপকেন্দ্র এবং ১০ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। এসময় তিনি বলেন, উন্নয়ন নয় দেশকে পিছিয়ে রাখাই ছিল বিএনপি-জামায়াতের চরিত্র।

সরকারপ্রধান বলেন, ২০০১ এ যারা ক্ষমতায় এসেছিল তাদের লক্ষ্য ছিল কিভাবে তারা নিজেরা আর্থিকভাবে লাভবান হবেন। অর্থ সম্পদের দিকে তারা বেশি ব্যস্ত ছিল সেই সাথে সাথে দুর্নীতি মানিলন্ডারিং, স্বজনপ্রীতি জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস সে দিকেই তাদের দৃষ্টি ছিল। ওইসময় আমরা যে কাজগুলো শুরু করেছিলাম সেগুলো যদি সম্পন্ন করতো তাহলে হয়তো দেশের মানুষ কিছু আলো পেত। সেটা তারা করতে পারিনি।   

বাংলাদেশের সব ঘর যাতে আলোকিত হয় সে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

Bootstrap Image Preview