Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ মঙ্গলবার, নভেম্বার ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

বাড়িতে একা পেয়ে মাদ্রাসাছাত্রীকে ‘শ্লীলতাহানি’, শিক্ষক গ্রেফতার

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:০২ PM
আপডেট: ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:০৯ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক মাদ্রাসাছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার রাতে নিজ বাড়ি থেকে রুকুনুজ্জামান নামের ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

অভিযোগ থেকে জানা গেছে, বকশীগঞ্জের একটি মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন মাদ্রাসাটির জুনিয়র শিক্ষক মো. রুকুনুজ্জামান। গত ১৫ জুলাই মাদ্রাসার পাশেই নিজ বাড়িতে পড়াশোনা পড়াশুনা করছিলেন ওই ছাত্রী। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে শিক্ষক রুকুনুজ্জামান ওই ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করেন।

ঘটনার পরের দিন গত ১৬ জুলাই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ দেয় ওই ছাত্রী। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এ ঘটনার পর থেকেই ওই শিক্ষক মাদ্রাসায় আসা বন্ধ করে দেন।

গতকাল বুধবার অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের বিচার দাবি করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দেওয়ান মোহাম্মদ তাজুল ইসলামের কাছে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে স্বারকলিপি প্রদান করা হয়।

একই সময়ে রুকুনুজ্জমানের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইউএনও’র কাছে লিখিত অভিযোগ দেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আবদুর রশিদ।

গতকাল রাতেই ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে বকশীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ.কে এম মাহবুব আলম জানান, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই শিক্ষক রুকুনুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

 

Bootstrap Image Preview