Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ শনিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৯ | ৬ আশ্বিন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

ইনো খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি ৮ শিক্ষার্থী

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ আগস্ট ২০১৯, ১০:৩৪ PM
আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৯, ১০:৩৪ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


দ্রুত হজমের জন্য ব্যবহৃত ইনো (পানিতে গুলিয়ে খাওয়ার পাউডার) খেয়ে জয়পুরহাটের ৮ শিশু শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। তারা সবাই জয়পুরহাট পৌর এলাকার হাতিল মাগণীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

তারা হলো, মুনিকা, তানিম, আরশি, রাজিয়া, বেবী, সুমাইয়া, নুশরাত ও কনিকা। তাদের বাড়ি পৌর শহরের বুলুপাড়া ও হাতিল হাজিপাড়া এলাকায়।

মাগণীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফরিনা খাতুন জানান, ৩য় শ্রেণির শিক্ষার্থী নুশরাত এক সপ্তাহ আগে এক ফেরিওয়ালার কাছ থেকে এক প্যাকেট হজমের ইনো পাউডার কেনে। শনিবার নুশরাত স্কুলে এসে দুপুরে টিফিনের সময় ওই ইনো পাউডার ৮ জন শিক্ষার্থী মিলে পানিতে মিশিয়ে পান করে। পরে ক্লাস শুরু হলে তারা পেটে ব্যথা অনুভব করে। এ সময় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে একজন চিকিৎসকের পরামর্শে তাদের প্রচুর পানি ও বমি করানো হয়। তারপরও অবস্থার অবনতি হলে স্কুলের শিক্ষক ও অভিভাবকরা মিলে বিকেলে তাদের জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহবুবুল হক রয়েল জানান, প্রাথমিক চিকিৎসার পর বর্তমানে তাদের অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

প্যাকেটের গায়ে লেখা থেকে জানা যায়, পাঁচবিবি ধরঞ্জী ইউনিয়নে প্রতিষ্ঠিত টিএসবি প্রোডাক্টস্ নামের একটি প্রতিষ্ঠান ভারতীয় হজমের পাউডার ইনোর অবিকল নাম ও প্যাকেট ব্যবহার করে তৈরি করছে।

টিএসবি প্রোডাক্টসের স্বত্বাধিকারী মাহবুব আলম জানান, রেজিস্ট্রেশনের কাগজ শিল্প মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন আছে এবং আমার প্যাকেটের গায়ে ১২ বছরের নিচে ইনো খাওয়া যাবে না বলে লেখা আছে এবং তিন মাস ধরে উৎপাদন বন্ধ আছে বলেও জানান তিনি।

জয়পুরহাটের জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন বলেন, ব্যাপারটি শুনলাম। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Bootstrap Image Preview