Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ রবিবার, আগষ্ট ২০১৯ | ১০ ভাদ্র ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

মহাদেবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

মহাদেবপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২০ জুলাই ২০১৯, ০৯:৫৮ PM
আপডেট: ২০ জুলাই ২০১৯, ০৯:৫৮ PM

bdmorning Image Preview
প্রতীকী ছবি


নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার সফাপুর ইউনিয়নের পবাতৈড় গ্রামে এক গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে নওগাঁর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এ পবাতৈড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী ও একই গ্রামের শ্যামল চন্দ্রের ছেলে শ্রী পলাশ কুমারের বিরুদ্ধে সম্প্রতি একটি মামলা দায়ের করেন।

বিচারক মামলাটি এজাহার হিসেবে গণ্য করে ৯০ কার্যদিবসের মধ্যে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দিলে গত পহেলা জুলাই থানায় মামলাটি রেকর্ড করা হয়।

মামলার বিবরণে জানা যায়,  বিগত ২-৩ বছর থেকে শ্রী পলাশ কুমার ওই গৃহবধূকে বিভিন্ন সময় উত্ত্যক্ত করে এবং রাস্তাঘাটে কু-প্রস্তাব দেয়। এ সকল বিষয়ে ওই গৃহবধূ তার স্বামী ও স্থানীয়দের জানালে গ্রাম্য সালিশ হয় এবং আর কখনো এমন আচরণ করবেনা মর্মে শ্রী পলাশ কুমার সালিশে অঙ্গীকার করে।

গত ১২ জুন বুধবার রাত ১২ টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সারা দেয়ার জন্য ঘর থেকে বাহিরে আসলে একপর্যায়ে জোরপূর্বক বিবস্ত্র করে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

এ সময় ডাক-চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে এবং তার স্বামী শ্রী পলাশ কুমারকে ধরে ফেল্লে সে লাথি মেরে পালিয়ে যায়।

অভিযুক্ত শ্রী পলাশ কুমারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমাকে ফাঁসানোর উদ্দেশ্যে এ ধরনের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহাদেবপুর থানার এসআই এরশাদ মিঞা বলেন, ‘আদালতের নির্দেশে থানায় মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত চলছে, যথা সময়ে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

Bootstrap Image Preview