Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ মঙ্গলবার, আগষ্ট ২০১৯ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

পাল্টে যাচ্ছে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা, আসছে নতুন নিয়ম!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ জুলাই ২০১৯, ০৪:৫৯ PM
আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯, ০৪:৫৯ PM

bdmorning Image Preview


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার নিয়ম পাল্টে যাচ্ছে। এতদিন এ পরীক্ষায় শুধু বহু নির্বাচনী প্রশ্ন (এমসিকিউ) থাকলেও, এবার এর সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে লিখিত পরীক্ষা। এছাড়া কৃষি ও কৃষির প্রাধান্য থাকা আট সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে একসঙ্গে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে। তবে সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত বাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আগের নিয়মে আলাদাভাবে ভর্তি পরীক্ষা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ একাধিক বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, আগামী ১৭ জুলাই উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। তার আগেই ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ৩ জুলাই ডিনস কমিটির সভায় নতুন নিয়মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে আলোচনা হয়। সেখানে আসন্ন শিক্ষাবর্ষ (২০১৯-২০) থেকে ৬০ নম্বরের এমসিকিউ ও ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তির সিদ্ধান্ত হয়েছে। এমসিকিউ ৪০ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৫০ মিনিট সময় থাকবে। সংক্ষিপ্ত আকারের লিখিত প্রশ্ন উত্তরপত্রের মধ্যেই থাকবে এবং সেখানেই উত্তর দিতে হবে। দুই অংশ মিলিয়ে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষার ফল এবং এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের ফলকে ১০০ নম্বর হিসাব করে মোট ২০০ নম্বরের ভিত্তিতে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে। শিগগিরই ভর্তি কমিটির সভায় এ বিষয়ে অনুমোদন নিয়ে তা ঘোষণা করা হবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডিনস কমিটির এক সদস্য জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে শুধু এমসিকিউ দিয়ে একজন শিক্ষার্থীর প্রকৃত জ্ঞান ভালোভাবে বোঝা যায় না। লিখিত পরীক্ষা হলে সামগ্রিকভাবে শিক্ষার্থীর জ্ঞান জানা যাবে। এ জন্যই এমসিকিউয়ের পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮৪টি বিভাগ রয়েছে। এগুলোতে প্রথম বর্ষে মোট আসন ৭ হাজার ৬৩০ টি। পাঁচটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা হয়। ৫ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনপত্র গ্রহণ করা হবে। তবে টাকা জমা দেওয়ার শেষ সময় ২৮ আগস্ট। এবার মোট আবেদন ফি ১০০ টাকা বাড়িয়ে ৪৫০ টাকা করা হয়েছে। ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হবে ১৩ সেপ্টেম্বর।

এ ছাড়া বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের পরীক্ষা ২০ সেপ্টেম্বর, কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটের পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে ২৭ সেপ্টেম্বর। আর চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান অংশের পরীক্ষা ১৪ সেপ্টেম্বর ও অঙ্কন অংশের পরীক্ষা হবে ২৮ সেপ্টেম্বর।

এদিকে দেশে ৪৯টি স্বায়ত্তশাসিত ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৪ টিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হচ্ছে। এর মধ্যে কেবল বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় এবং সমধারার পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেবে। ফলে একটি পরীক্ষার মাধ্যমেই আট বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাবে ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা। আটটি বিশ্ববিদ্যালয়েই ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র থাকবে। ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীর পছন্দ অনুযায়ী কেন্দ্র ঠিক হবে। এবার গুচ্ছভিত্তিক ভর্তির কাজটির নেতৃত্ব দিচ্ছে ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

Bootstrap Image Preview