Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ শুক্রবার, অক্টোবার ২০১৯ | ২ কার্তিক ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

পাসপোর্ট রেখে প্রাইভেটকার ভাড়া, পাবনায় আটক ৪ ইরানি

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৫ জুন ২০১৯, ১০:৩১ PM
আপডেট: ১৫ জুন ২০১৯, ১০:৪২ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


রাজধানীর বনানী এলাকা থেকে পাঁচদিনের জন্য ১৭ হাজার ৫০০ টাকা ভাড়া চুক্তি করা প্রাইভেটকারসহ চার ইরানি নাগরিককে আটক করেছে পুলিশ। 

শনিবার (১৫ জুন) বেলা আড়াইটার দিকে পাবনার বেড়া উপজেলায় কাশীনাথপুর ট্রাফিক মোড় থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- আমির, হোসাইন, মোর্তজা এবং সিয়াবত। এদের সবার বয়স ৩০-৪০-এর মধ্যে হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

তাদের আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে আমিনপুর থানা পুলিশের ওসি মোমিনুল ইসলাম জানান, চার বিদেশি ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক হয়ে পাবনা থেকে ঢাকার দিকে যাচ্ছিলেন।

বেলা ২টার দিকে সুজানগর উপজেলার চিনাখড়া বাজারের ব্যবসায়ী মতিউল ইসলামের দোকানে গিয়ে বাংলাদেশি দুটি ৫০০ টাকার নোট ভাঙানোর কথা বলে খুচরা টাকা নেন। কিন্তু ৫০০ টাকার নোট দুটি না দিয়ে গাড়ি নিয়ে চলে যায়।

ব্যবসায়ী মতিউল ইসলামের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, চার বিদেশি নাগরিক দোকান থেকে চলে আসার পর ওই ব্যবসায়ী তার ক্যাশ বাক্সে ১২ হাজার টাকা কম দেখতে পান। এতে তার সন্দেহ হয়। তিনি আমিনপুর থানায় ছিনতাইকারী সন্দেহে চার বিদেশির বিরুদ্ধে অভিযোগ দেন।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে বেলা আড়াইটার দিকে পুলিশ কাশীনাথপুর মোড় থেকে প্রাইভেটকারসহ ওই চার বিদেশিকে চ্যালেঞ্জ করে আমিনপুর থানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায়।

ওসি আরও বলেন, তাদের কাছে থাকা কাগজপত্র অনুযায়ী ১৯ মে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন। ১৩ জুন ঢাকার রেন্ট-এ-কার থেকে একটি গাড়ি ভাড়া নেন। বিদেশিদের ভাড়া নেয়া কারটি চালাচ্ছিলেন তাদেরই একজন।

এদিকে সাঁথিয়া উপজেলার কাবারিকোলা গ্রামের বাসিন্দা ও কাশীনাথপুরের গোল্ডলিফ সিগারেট কোম্পানির এসআর (সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ) রওশন আলী বলেন, এরকম একটি ইরানি গ্রুপ তিনদিন আগে আমাকে বেশি কমিশন দিয়ে ডলার ভাঙিয়ে নেয়ার কথা বলে ৪৬ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। এরা ওই গ্রুপের লোক কি-না তা জানার জন্য আমার কোম্পানির লোক আমিনপুর থানায় গেছেন।

ওসি মোমিনুল ইসলাম আরও বলেন, তারা ইংরেজি ভাষা বোঝেন না। আরবি ও ফার্সিতে কথা বলছেন। আরবিতে পারদর্শী ব্যক্তি থানায় আনা ছাড়া তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত জানা সম্ভব হচ্ছে না।

এজন্য একজন দোভাষী আনার চেষ্টা করছে পুলিশ। তবে যেটুকু বুঝতে পেরেছি তারা টাকা নিয়ে পালানোর কথা অস্বীকার করছেন।তারা আমাদের বোঝাতে চেষ্টা করছেন ব্যবসার উদ্দেশ্যে বাংলাদেশে আসেন। একই উদ্দেশ্যে পাবনায় ঝুট দিয়ে তৈরি টি-শার্ট দেখতে এসেছেন তারা।

আখতার হোসেন নামে ঢাকার বনানী টিঅ্যান্ডটি কলোনির রেন্ট-এ-কার ব্যবসায়ী বলেন, হামিদ নামের ওই বিদেশিদের একজনের পাসপোর্ট রেখে পাঁচদিনের জন্য গাড়িটি ভাড়া নিয়েছেন তারা। পাঁচদিনের জন্য ১৭ হাজার ৫০০ টাকা ভাড়া চুক্তি করা হয়। তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত কিছুই আমি জানি না।

ওসি আরও বলেন, চার বিদেশির সম্পর্কে বিস্তারিত খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। তারা প্রতারক চক্রের হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। না হলে বিদেশি হিসেবে সসম্মানে ছেড়ে দেয়া হবে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস বলেন, চার বিদেশির সঙ্গে কথা বলার জন্য আমিনপুর থানায় রয়েছি আমি। বিষয়টি ভালোভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Bootstrap Image Preview