Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৭ রবিবার, নভেম্বার ২০১৯ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

নদীতে ডুবে সহোদরসহ ৩ শিশুর মৃত্যু

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০১৯, ০৭:০২ PM
আপডেট: ১৪ জুন ২০১৯, ০৭:০২ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


খাগড়াছড়ির রামগড়ে ফেনী নদীতে ডুবে যাওয়া খেলার সাথীকে বাঁচাতে গিয়ে সহোদরসহ নদীতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে ৩ শিশুর।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) উপজেলার সীমান্তবর্তী বাগান বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল দীর্ঘ প্রায় ৬ ঘণ্টা চেষ্টার পর ডুবে যাওয়া শীশুদের লাশ উদ্ধার করতে সক্ষম হন।

নিহত শিশুরা হচ্ছে- বাগান বাজার ইউনিয়নের পুরান রামগড়ের বাসিন্দা প্রবাসী বোরহান উদ্দীনের দুই ছেলে জুবায়ের হোসেন (১৪), আজহার উদ্দীন (১২) এবং পূর্ব হলুদিয়ার মোহাম্মদ আলীর ছেলে তৌহিদুর আলম (৭)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চার শিশু বাড়ির পার্শ্ববর্তী ফেনী নদীতে গোছল করতে যায়। এ সময় এক শিশু গভীর পানিতে ডুবে যেতে থকলে এক শিশু তাকে বাঁচাতে গিয়ে নিজেও ডুবে যেতে থাকে। সেসময় এক সহোদর ভাইকে ডুবে যেতে দেখে ওপর ভাই বাঁচাতে গেলে একে একে ৩ শিশুই পানিতে ডুবে যায়।

এ অবস্থায় সাথে থাকা ওপর শিশু বাড়ি গিয়ে খবর দিলে ডুবে যাওয়া শিশুদের পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা এসে তাদের উদ্ধারের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। এ অবস্থায় ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে তারা এসে রামগড় যুব রেড ক্রিসেন্ট ও এলাকার কয়েকশ মানুশের সাথে যৌথভাবে প্রায় ৩ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়েও লাশ শিশুদের উদ্ধারে ব্যর্থ হন।

পরবর্তীতে, চট্টগ্রাম থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল গিয়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে শিশুদের লাশ উদ্ধার করতে সক্ষম হন।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, নিহত শিশুরা তাদের নানা নুরুল ইসলাম মেম্বারের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলো। গরমের কারণে তারা নদীতে গোছল করতে যায়। বিকেলে তাদের নিজ বাড়িতে ফেরার কথা ছিলো।

এ বিষয়ে রামগপড় ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ ডলার ত্রিপুরা জানান, শিশুদের ডুবে যাওয়ার খবর পেয়ে তাদের উদ্ধারের চেষ্টা করা হয়। নদীতে পানি কম থাকলেও তারা যে স্থানে ডুবে গিয়েছিলো সেখানে প্রায় ২০ ফুট গভীর কূপ ছিলো। পরে চট্টগ্রাম থেকে ডুবুরিদল এনে তাদের উদ্ধার করা হয়।

Bootstrap Image Preview